সর্বশেষ সংবাদ :

রাজশাহী মেডিকেলে ২৪ ঘণ্টায় ৩ ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে বুধবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত তিন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একজন এবং বুধবার সকালে ও দুপুরে অন্য দুজনের মৃত্যু হয়।
সর্বশেষ বুধবার বেলা আড়াইটায় নাটোরের লালপুর উপজেলার বেদানা (৬৫) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়। তাঁকে ৬ আগস্ট রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তাঁর ঢাকায় ভ্রমণের ইতিহাস ছিল।
এর আগে সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার আলিনগর গ্রামের সৈকত (১৮) নামের এক তরুণ মারা যান। তাঁকে গতকাল সন্ধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। মেডিসিন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। পরীক্ষায় ধরা পড়ে তিনি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ছিলেন।
এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ডেঙ্গু ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আইয়ুব আলী (৪০) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার ফুলবাড়িয়া এলাকার বাসিন্দা। গত শনিবার প্রথমে তাঁকে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত সোমবার তাঁকে রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করা হয়।
হাসপাতালের ডেঙ্গু ওয়ার্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক ড. তানজিরুল বারি বলেন, বলেন, যেসব রোগী একেবারে মুমূর্ষু অবস্থায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আসছেন, তাঁদের চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলা কঠিন হচ্ছে। তাঁরা আক্রান্ত হওয়ার সাত থেকে আট দিন পর হাসপাতালে আসছেন। বেশির ভাগ রোগী বুঝতে পারছেন না, তাঁরা ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন।
তিনি বলেন, এর আগে চলতি বছরের ৮ জুলাই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৌসুমের প্রথম ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়। এ নিয়ে চারজন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন। হাসপাতালের দেওয়া তথ্যমতে, আজ সকাল পর্যন্ত হাসপাতালে ৮০ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন। এর মধ্যে রাজশাহী জেলার রোগীর সংখ্যা ৪০।
তানজিরুল বারি বলেন, ডেঙ্গু রোগীদের জন্য ২৫, ৩০, ৩৯ ও ৪০ ওয়ার্ড ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।


প্রকাশিত: আগস্ট ১০, ২০২৩ | সময়: ৬:০০ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ