বিকাশ প্রতারণার শিকার হয়ে যুবকের আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী বাগমারা উপজেলার ভটখালী চন্দ্রপাড়া গ্রামে বিকাশ প্রতারক চক্রের শিকার হয়ে টাকা হারিয়ে সর্বস্বান্ত্ব হওয়ার ঘটনায় আলমগীর হোসেন (২৫) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। আলমগীর হোসেন চন্দ্রপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে। রবিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।
বাগমারা থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠায়। সোমবার দুপুরে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়। পুলিশ নিহতের পকেট থেকে একটি চিরকুট উদ্ধার করে। যেখানে লেখা ছিলো ‘আমার এই মৃত্যুর জন্য বিকাশ প্রতারক চক্র দায়ী’।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার ওই গ্রামের দুবাই প্রবাসী আব্দুস সালাম আলমগীরের বিকাশ এ্যাকাউন্টে ৮২ হাজার টাকা পাঠান। এছাড়া ব্যবসায়িক সূত্রে তার বিকাশ এ্যাকাউন্টে আরো অর্থ ছিল। পরে তিনি নিজের বিকাশ এ্যাকাউন্ট থেকে টাকা উত্তোলন করতে গিয়ে দেখেন আর কোন টাকা নেই। এ ঘটনায় আলমগীর মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েন। অন্যের অর্থ হারিয়ে নিস্ব হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।
নিহতের ভাই আলতাফ হোসেন জানান, আমার ভাই একটি তাজাপ্রাণ, দুনিয়া থেকে হারিয়ে গেলেন চিরতরে। আমরা এই শোক সহ্য করতে পারছি না। তিনি পুলিশ প্রশাসনের কাছে একটাই দাবি করেন, বিকাশ চক্রের প্রতারণার মাধ্যমে আমি ভাইকে হারালাম। প্রতারক চক্রটি যেন ধরা পড়ে। আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়। যাতে আর কাওকে এভাবে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে না হয়।
এ প্রসঙ্গে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আনে। সোমবার লাশের ময়নাদন্তের জন্য রামেকের মর্গে পাঠানো হয়। নিহতের বিকাশ নম্বর সহ মোবাইল ফোন ও চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে।
বিষয়টি দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ওসি।


প্রকাশিত: আগস্ট ১, ২০২৩ | সময়: ৬:৩২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর