সর্বশেষ সংবাদ :

মান্দায় চাঁদা না পেয়ে দোকানে হামলা, খদ্দেরকে মারধর

মান্দা প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় চাঁদার টাকা না পেয়ে দোকানঘরে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে নেশাগ্রস্থ এক যুবকের বিরুদ্ধে। এসময় ওই দোকানে পান কেনার অভিযোগে মারধরের শিকার হন আইনজীবীর সহকারী বেলাল হোসেন (৫০)। তিনি মান্দা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।
বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার বুড়িদহ বাজারে হামলা ও মারধরের এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক দীপংকর কুমার চৌধুরীর (৩০) বিরুদ্ধে শুক্রবার মান্দা থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযুক্ত দীপংকর চৌধুরী বুড়িদহ বাজারের রনজিৎ চৌধুরীর ছেলে। ২০১৮ সালের ১০ জানুয়ারি ১৮৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও একটি পালসার মোটরসাইকেলসহ তাকে গ্রেপ্তার করে রাজশাহীর তানোর থানা পুলিশ। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে একটি মামলা করেন। মামলাটি রাজশাহী আদালতে বিচারাধীন আছে।
ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী সানোয়ার হোসেন জানান, বেশকিছু দিন ধরে দীপংকর চৌধুরী আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। জের ধরে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে আমার দোকানের সামনে এসে খদ্দেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ ভয়ভীতি দেখাতে থাকে। এসময় দীপংকর নেশাগ্রস্থ অবস্থায় ছিল।
ব্যবসাীয় সানোয়ার হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘দীপংকরের হুমকি ধামকির কারণে আগত খদ্দেররা মালামাল না কিনে চলে যান। রাত ১০টার দিকে আইনজীবীর সহকারী বেলাল হোসেন প্রসাদপুর থেকে মোটরসাইকেলে বুড়িদহ বাজারে এসে আমার দোকানে পান খেতে আসেন। এসময় পান কেনার অভিযোগে বেলাল হোসেনের ওপর হামলা চালিয়ে মারধর করেন দীপংকর চৌধুরী।’
বুড়িদহ বাজারের ব্যবসায়ী আহাদ আলীসহ আরও অনেকে বলেন, হঠাৎ করেই বেলাল হোসেনের ওপর হামলা চালিয়ে মারধর করেন দীপংকর চৌধুরী। পরে তাকে উদ্ধার করে মান্দা হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করান স্থানীয় লোকজন।
মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাম্মেল হক কাজী বলেন, ‘এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’


প্রকাশিত: জুলাই ২৯, ২০২৩ | সময়: ৬:১৫ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর