সর্বশেষ সংবাদ :

কাপড়ের বস্তায় কুরিয়ারে গাঁজার চালান, দম্পতি গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার : কাপড়ের বস্তার মধ্যে অভিনব কায়দায় ১৫ কেজি গাঁজা লুকিয়ে কুরিয়ারের মাধ্যমে নাটোরে এনে বিক্রির অভিযোগে এক দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে রাজশাহী বিভাগীয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।
বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নাটোরের কানাইখালী পুরাতন বাসস্ট্যান্ডস্থ এলাকার একটি কুরিয়ার সার্ভিস অফিস থেকে গাঁজার ওই বস্তা নিয়ে যাওয়ার সময় দম্পতিকে গ্রেফতার করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের রাজশাহী বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়।
গ্রেফতার দম্পতি হলো- কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার মৃত আব্দুল হালিম আলীর ছেলে মো. আল আমিন সরকার (২৬) ও তার স্ত্রী মোছা. মনিরা খাতুন ওরফে মনিকা (২৪)। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে এই দম্পতির বিরুদ্ধে নাটোর সদর থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।
শুক্রবার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর রাজশাহী বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক . জিললুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ওই দম্পতির নামে কুড়িগ্রাম থেকে কুরিয়ারে একটি বস্তা আসে। কাপড়ের বস্তা বলে আনা হলেও তার মধ্যে অভিনব কায়দায় ১৫ কেজি গাঁজা লুকানো ছিল। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে নাটোরের কানাইখালী পুরাতন বাসস্ট্যান্ডস্থ ওই কুরিয়ার সার্ভিস অফিস সংলগ্ন এলাকায় অভিযানে যান মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের সদস্যরা। এসময় ওই দম্পতি বস্তাটি কুরিয়ার থেকে নিয়ে একটি রিকশায় উঠলে তল্লাশি চালানো হয়। এসময় ওই বস্তার ভেতর থেকে ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।
তিনি আরও বলেন, মাদক চোরাকারবারি এই দম্পতি দীর্ঘদিন ধরে কুড়িগ্রাম থেকে গাঁজা এনে নাটোরের লালপুরসহ বিভিন্নস্থানে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে বিক্রি করতো। ওই দম্পতিকে গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে নাটোর সদর থানায় মাদ্রকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়।


প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২৩ | সময়: ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ