সর্বশেষ সংবাদ :

রাজশাহীতে যুবাদের খেলা দেখতে না পেয়ে ক্ষুব্ধ দর্শকরা

স্টাফ রিপোর্টার : দীর্ঘ এক যুগ পর বয়সভিত্তিক পর্যায়ে আন্তর্জাতিক কোনো ম্যাচ আয়োজনের সুযোগ পেয়েছে রাজশাহী। বাংলাদেশ-পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় আজ।
কিন্তু শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বিভাগীয় স্টেডিয়ামে প্রবেশ নিষিদ্ধ করায় ক্ষুব্ধ রাজশাহীর দর্শকরা। বাংলাদেশ ৪ উইকেটের দারুণ এক জয় পেলেও সেটা দেখার সুযোগ হয়নি তাদের।
এই ঘটনায় তারা ক্ষুব্ধ হয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। এমনকি খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলটও আজ দুপুরে এই প্রসঙ্গে ফেসবুক লাইভ করেছেন। সেখানে তিনি আন্তর্জাতিক ম্যাচটি দেখার সুযোগ সৃষ্টির জন্য বিসিবির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। দাবি করেছেন- দর্শক গ্যালারী খুলে দেওয়ার জন্য।
রাজশাহীতে আজকের ম্যাচটি দেখার জন্য সাত সকালেই অনেক দর্শক উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে স্টেডিয়াম অভিমুখে যান। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা থাকায় শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান স্টেডিয়ামের গেট থেকেই ক্রীড়ামোদীদের ফিরিয়ে দেওয়া হয়।
ফয়সাল আহমেদ, আবদুর রশিদ ও জামিলুর রহমান নামের কয়েকজন দর্শক ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, দীর্ঘ এক যুগ পর রাজশাহীর মাঠে আন্তর্জাতিক কোন ক্রিকেট ম্যাচ গড়াল। এই ম্যাচকে নিয়ে তারা এতদিন থেকে দারুণভাবে উচ্ছ্বসিত ছিলেন। কিন্তু এখানকার ম্যাচগুলো দর্শকবিহীন হবে তারা আগে তা অনুমান করতে পারেননি। আর এমন কোনো ঘোষণাও দেওয়া হয়নি। আজ সকালে এসেই তারা বিষয়টি জানতে পারেন। আর বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। তারা এতে হতাশ ও সংক্ষুব্ধ হয়েছেন। এ সময় তারা বিসিবির এমন হটকারী সিদ্ধান্ত দ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানান।
এই ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ভেন্যু ম্যানেজার আরেফিন ইসলাম জানান, এখানে তার করার কিছুই নেই। এই ব্যাপারে তিনি কিছুই বলতে পারবেন না। বিসিবির উপর মহলের সিদ্ধান্তে রাজশাহীর ভেন্যুতে ক্রিকেট ম্যাচ চলাকালীন দর্শক নিষিদ্ধ করা হয়েছে।


প্রকাশিত: মে ১২, ২০২৩ | সময়: ৫:০৭ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ