সর্বশেষ সংবাদ :

পদ্মায় মিললো নিখোঁজ শিশুর মরদেহ

স্টাফ রিপোর্টার : পদ্মা নদী থেকে নিখোঁজ শিশু রেখা খাতুনের (৮) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রাজশাহীর বাঘায় নিখোঁজ হলেও তার ভাসমান মরদেহ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।
মঙ্গলবার বিকেলে আইনি প্রক্রিয়া শেষে সেই মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এরআগে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের লুকন্তা সর্দারপাড়া এলাকার পদ্মা নদীতে ওই শিশুর ভাসমান মরদেহ পাওয়া যায়।
জানা যায়, রেখা খাতুন নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার বিলবাড়িয়া গ্রামের রাজ্জাক আলীর মেয়ে। সোমবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে বাঘা উপজেলার পদ্মার চরাঞ্চলের কালিদাশখালী এলাকার পদ্মায় খালাতো ও মামাতো ভাই-বোনদের সঙ্গে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয়েছিল রেখা।
রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চরাঞ্চল চকরাজাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ডিএম মনোয়ার বাবুল জানান, শিশু রেখা খাতুনের নানা নাজিম উদ্দিনের বাড়ি উপজেলার পদ্মার চরাঞ্চলের কালিদাশখালী গ্রামে। ঈদ উপলক্ষে মা ফেরদৌসী বেগমের সঙ্গে তার নানার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল রেখা। সেখানে ভাই-বোনদের সঙ্গে পদ্মায় গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয়েছিল সে। আজ মঙ্গলবার তার মরদেহ মিলেছে।
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান জানান, খবর পেয়ে থানা থেকে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে তাদের যাওয়ার আগেই আইনি প্রক্রিয়া শেষে নৌ-পুলিশ ওই শিশুর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে।


প্রকাশিত: এপ্রিল ২৬, ২০২৩ | সময়: ৫:২৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ