বাঘায় পুকুরে বিষ ঢেলে ৩ লক্ষ টাকার মাছ লুট

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা :

রাজশাহীর বাঘায় পুকুরে বিষ ঢেলে ৩ লক্ষ টাকার মাছ লুট করার অভিযোগ করা হয়েছে। ৭ জনের নাম উল্লেখ করে মঙ্গলবার থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেছেন উপজেলার মনিগ্রাম ইইনিয়নের রাজনৈতিক নেতা ও সাবেক স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আফাজ আলী। তবে  স্থানীয়  লোকজন জানিয়েছেন এটি একটি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র।

 

 

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে , বাঘা উপজেলার তুলশীপুর সোদপুর গ্রামে ১ একর ১৯ শতকের একটি সরকারি খাস পুকুর ৩ বছরের জন্য লিজ নিয়ে মাছ চাষ করছেন মনিগ্রাম এলাকার আবদুস সামাদের ছেলে আফাজ উদ্দিন। কয়েক মাস আগে প্রায় ৩ লাখ টাকা ব্যয়ে তিনি ঐ পুকুরে-রুই, কাতলা, তেলাপিয়া, সিলভার ও মৃগেল-সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ পুকুরে ছাড়েন। মাছগুলো আর কিছুদিন পরে বিক্রি করার কথা ছিল।কিন্তু এর আগে মঙ্গলবার রাতে কে বা কারা পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে। এরপর মাছ গুলো ভেষে উঠলে সেগুলো লুটে নেয়া হয়।

 

 

এ বিষয়ে আফাজ উদ্দিন বলেন, আমি তিন বছর থেকে পুকুর লিজ নিয়ে মাছ চাষ করছি। এবার পুকুরটির সাথে রুবেল নামে অপর এক ব্যাক্তিকে অংশিদার রেখেছি। ঈদকে সামনে রেখে দু’একদিনের মধ্যে মাছ মেরে নেয়ার কথা ছিলো। কিন্তু তার আগে কে-বা কাহারা আমার এই সর্বনাশ করলো ঠিক বুঝলাম না। তবে সন্দেহ মূলক ভাবে প্রাথমিক  অবস্থায় ৭ জনের নামে থানায় একটি মামলা করেছি।

 

 

 

এদিকে রুবেল হোসেন জানান , পুকুরটি বরাবর আমার নামে লিজ নিয়ে আফাজ উদ্দিন মাছ চাষ করে আসছিলেন। এবার আমি নিজে মাছ চাষ করতে চাইলে তিনি কয়েক দিনের মধ্যে তার মাছ ধরে নিয়ে আমাকে পুকুর ছেড়ে দেয়ার কথা ছিলো। আমি সেই অপেক্ষায় রয়েছি। তার সঙ্গে আমার কোন বিবাদ নাই। কে-বা কাহারা পুকুরে বিষ প্রয়োগ করেছে সেটিও আমার জানা নাই।

 

 

 

তবে নাম প্রকাশ না করার সর্তে স্থানীয় একাধিক ব্যাক্তি জানান, তিনি কবে-কখন এতো টাকার মাছ পুকুরে ছাড়লো সেটি আমরা কেউ দেখিনি। মুলত: তিনি একজন বিতর্কিত রাজনৈতিক নেতা । বর্তমানে তার নামে বাঘা থানায় প্রায় ৭-৮ টি মামলা রয়েছে।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) খায়রুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

সানশাইন/সোহরাব


প্রকাশিত: এপ্রিল ১৯, ২০২৩ | সময়: ৭:৪৩ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine