আ.লীগ সভানেত্রীর কাছে ডাবলুকে বহিষ্কারের আবেদন

স্টাফ রিপোর্টার : 
আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে পড়ায় রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন করেছে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ৪৬ জন সদস্য। এছাড়া ডাবলু সরকার একজন ‘রাজাকারপুত্র’ বলেও উল্লেখ করা হয়েছে ওই আবেদনে। গত সোমবার (২৭ মার্চ) আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ে আবেদনটি গৃহীত হয়েছে। সভানেত্রীর কাছে পাঠানো আবেদনের একটি অনুলিপি ইতিমধ্যে প্রতিবেদকের কাছে এসেছে।

ডাবলু সরকার – ফাইল ছবি

 

বহিষ্কারের ওই আবেদনটি করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোজাফফর হোসেন। আবেদনটি বিবেচনার জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ করে স্বাক্ষর দিয়েছেন দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বেগম আখতার জাহান। এছাড়াও এতে বর্তমান সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামালসহ মহানগর কমিটির ৪৬ জন নেতা স্বাক্ষর করেছেন।

 

 

দলীয় প্রধান বরাবর দেওয়া আবেদনে লেখা হয়েছে, ‘রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারের একটি যৌন আবেদনময়ী নগ্ন ভিডিও গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগ ম্যাধমে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে রাজশাহীসহ আশেপাশের জেলা এবং স্থানীয়-জাতীয় গণম্যাধমে বিষয়টি মূখ্য আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। ডাবলু সরকারের এমন নৈতিক স্খলনজনিত কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন তাঁকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ সকল কর্মকাণ্ড থেকে বহিস্কারের দাবি জানায়। ডাবলু সরকারের এমন কর্মকাণ্ডে দলের ভাবমূর্তি ধ্বংস করছে, যা আগামী জাতীয় নির্বাচনসহ অন্যান্য নির্বাচনে ব্যাপক প্রভাব ফেলবে। ইতিমধ্যে দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে চরম অসন্তোষ-বিরূপ সৃষ্টি হয়েছে।’

 

 

ওই আবেদনে এও উল্লেখ রয়েছে যে, ডাবলু সরকার আন্তর্জাতিক আদালতে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী রাজাকার আব্দুস সাত্তার টিপুর প্রধান সহযোগী মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী রাজাকার আব্দুর রশিদ সরকারের পুত্র। পরিশেষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি রক্ষার স্বার্থে ডাবলু সরকারকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদসহ সাধারণ সদস্য পদ থেকেও বহিষ্কারের আবেদন করা হয়েছে।

 

 

আবেদনের অনুলিপি দেওয়া হয়েছে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান, রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল ও দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়াকে। এই আবেদন করার পর দলীয় প্রধানের পক্ষ থেকে রাজশাহী জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ডাকা হয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার এই চারজনের সঙ্গে কথা বলবেন দলীয় প্রধান।

 

 

এই ভিডিও ইস্যুতে ডাবলুর বহিষ্কার দাবিতে প্রথম মাঠে নামেন কিছু নেতাকর্মী। দলীয় কোনো পদে না থাকা এসব নেতা-কর্মীরা ‘সচেতন রাজশাহীবাসী’ ও ‘তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী’ ব্যানারে সোচ্চার হন। এ ইস্যুতে প্রথম গত ২ মার্চ ‘সচেতন রাজশাহীবাসীর’ ব্যানারে মানববন্ধনের আয়োজন করা হলে ডাবলু সরকারের ভাই শাহনেওয়াজ সরকার সেডু ও জেডু সরকারের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। তারপরও একই দাবিতে কয়েক দিন কর্মসূচি পালিত হয়। সর্বশেষ গত ২৭ মার্চ নগর আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের পদে থাকা নেতাকর্মীরাই ডাবলুর বহিষ্কার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

 

 

বুধবার (২৯ মার্চ) দুপুরে মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল ডাবলুকে বহিষ্কারের আবেদন করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘একটা আবেদন করা হয়েছে। চারটি পাতায় এতে অনেকেই স্বাক্ষর করেছেন। আমিও করেছি। এর প্রেক্ষিতে দলীয় প্রধানের পক্ষ থেকে রাজশাহী জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ডাকা হয়েছে। গতকাল (মঙ্গলবার) আমাদের জানানো হয়েছে, আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) দলীয় প্রধান আমাদের সাথে কথা বলবেন। তারপর তিনিই সিদ্ধান্ত দেবেন।’

 

জানতে চাইলে ডাবলু সরকার বলেন, ‘বহিষ্কারের জন্য আবেদন করা হয়েছে কি না তা আমার জানা নেই। এটা করতেও পারে। অনেক কিছুই তো করছে।’ ডাবলু সরকার জানান, দলীয় প্রধানের পক্ষ থেকে তাকেও ডাকা হয়েছে। তিনি দলীয় প্রধানকে কি বলবেন জানতে চাইলে ডাবলু বলেন, ‘আমি কিছু বলব না। ওনার সামনে কথা বলার ধৃষ্টতা নেই।’

 

 

উল্লেখ্য, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ডাবলু সরকারের একটি আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এতে বিবস্ত্র অবস্থায় ভিডিও কলে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করতে দেখা যায় তাঁকে। ডাবলু সরকার দাবি করেন, ভিডিওতে থাকা ব্যক্তির শরীরের ওপরের অংশ তাঁর। তবে নিচের অংশ তাঁর নয়। এটি সম্পাদন করা। এই ভিডিও ফাঁস হওয়ার খবর প্রকাশের পর তিনি একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

সানশাইন / শামি


প্রকাশিত: মার্চ ২৯, ২০২৩ | সময়: ৪:০৭ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine