বড়াইগ্রামে চালককে কুপিয়ে ভ্যান ছিনতাইয়ের চেষ্টা

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে যাত্রীবেশে ফরহাদ হোসেন (২৬) নামে এক চালককে কুপিয়ে ভ্যান ছিনতাই চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলা চকপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় চালককে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ফরহাদ বড়াইগ্রাম পৌরসভার কালীবাড়ি এলাকার আব্দুর রহিমের ছেলে। তিনি ভ্যান চালানোর পাশাপাশি রাতে পৌর সদরের লক্ষীকোল বাজারের পাহারাদার হিসাবে কাজ করেন।
আহত ফরহাদ জানান, রাতে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের রাজ্জাক মোড় থেকে চকপাড়া যাবার কথা বলে কালিবাড়ি এলাকার মৃত তমিজ উদ্দিনের ছেলে মকবুল হোসেন (৫২) তার ভ্যানে উঠে।
ভ্যানটি চকপাড়া এলাকায় পৌঁছলে একজন লোক আসবে জানিয়ে তাকে ভ্যানটি থামাতে বলে। সে অনুযায়ী লাইট বন্ধ করে ভ্যানটি রাস্তার পাশে দাঁড় করালে হঠাৎ মকবুল পেছন থেকে তার ঘাড়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দিয়ে ভ্যান নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় ফরহাদের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে মকবুল দৌড়ে পালিয়ে যায়।
বড়াইগ্রাম হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. মুক্তার হোসের বলেন, তার ঘাড়ের পিছনে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গভীর ক্ষত হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
বড়াইগ্রাম পৌর কাউন্সিলর আব্দুল মোতালেব বলেন, মকবুল হোসেন খাস জায়গায় বসবাস করে মাদক সেবন, চুরি, ছিনতাইসহ এলাকায় বিভিন্ন অপরাধমুলক কাজ করে বেড়াতো। কিছুদিন আগে কালিবাড়ি মোড়ে একটা দোকানে চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজনের চাপে সে এলাকা ছেড়ে চলে যায়। বড়াইগ্রাম থানা অফিসার ইনচার্জ আবু সিদ্দিক বলেন, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


প্রকাশিত: মার্চ ২৯, ২০২৩ | সময়: ৬:২৯ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ