সর্বশেষ সংবাদ :

রাবিতে তারানা হালিম : নাৎসি বাহিনীর নির্যাতনকে ছাড়িয়ে গেছিলো পাক হানাদারদের নির্যাতন

রাবি প্রতিনিধি: সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর নাৎসি বাহিনী যে নির্যাতন চালিয়ে ছিলো, ২৫ মার্চের কালোরাতে বাঙালি নিরীহ নিরস্ত্র মানুষদের উপর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নির্যাতন সে নির্যাতনকেও ছাড়িয়ে গিয়েছিল।
শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ সিনেট ভবনে জাতীয় গণহত্যা দিবস উপলক্ষে ‘ওয়ান বাংলাদেশ’ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।
আলোচনা সভায় আলোচকের বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে রণাঙ্গন থেকে যে ৭৬ টি চিঠি সংগ্রহ করা হয়েছিল তার সংকলন থেকে একাত্তরের চিঠি বইটা বের করা হয়। চিঠিতে একজন মুক্তিযোদ্ধা তার মাকে লিখেছিল, ‘মা তুমি দোয়া করো, আমি যেন দেশের জন্য শহীদ হয়ে, শহীদের মর্যাদা পেতে পারি।’
তিনি বলেন, এই রাজশাহীর মুক্তিযোদ্ধা গফুর ওরফে কাজী নুরুল মুমিন ১৯৭১ সালের রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র তার মাকে লিখেছেন, ‘মা আমি এতো মানুষকে নৃশংসভাবে মরতে দেখেছি নিজেকে বাঁচতেও লজ্জা করছে। আমি মরে গর্বিত হতে চাই’ তিনি শহীদ হয়েই গর্বিত হয়েছেন। এই শহীদের যে বীরত্ব সেটা শুরু হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের পরে। যখন বঙ্গবন্ধু ভাষণ দিলেন তখন বাংলার নিরস্ত্র মানুষেরা হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছিল।
তারানা হালিম আরও বলেন, তৎকালীন বাঙালীরা মনের মধ্যে ধারণ করেছিল, আমার মাটি আমার মা, পাকিস্তান হতে দেবো না। তারা গান শুনতেন, মাগো ভাবনা কেন, আমারা তোমার শান্তি প্রিয় শান্ত ছেলে…। যারা শহীদ হয়েছে তাদের কিন্তু বয়স বাড়েনি, বয়স বেড়েছে তাদের সন্তানদের, তারা এখন সাদা কালো ফ্রেমে বন্দী।
আলোচনা সভায় রাবি উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার জেনোসাইডের তাৎপর্য বিশ্লেষণ করে বলেন, জেনোসাইড হতে কত সংখ্যা দরকার? আমারা বাংলাদেশীরাও কি শতভাগ বলছি জেনোসাইড হয়েছে? পাকিস্তানের লক্ষ্য ছিল বাঙালী জাতিকে শেষ করা। সেটাই তো জেনোসাইড, সংখ্যা দিয়ে কি হবে। এসময় তিনি গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে বলেন।
আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. শাহ আজম, রাবি উপ-উপাচার্যদ্বয় অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম ও অধ্যাপক হুমায়ুন কবীর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. নুজহাত চৌধুরী ও ওয়ান বাংলাদেশ-এর সভাপতি অধ্যাপক রশীদুল হাসান।


প্রকাশিত: মার্চ ২৫, ২০২৩ | সময়: ৬:২৫ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর