সর্বশেষ সংবাদ :

আদমদীঘিতে মুক্তিযোদ্ধার ছেলেকে হত্যার সাথে জড়িত তিনজন আটক

আদমদীঘি প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘিতে আমিরুল সরদার ওরফে আমিনুর নামের এক বীর মুক্তিযোদ্ধার ছেলেকে বৈঠকে ডেকে নিয়ে গিয়ে মারপিট করে হত্যার ঘটনায় জড়িত ৩ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। শুক্রবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে ইসলাম কবিরাজ ও আবু বক্কর এবং আফজাল হোসেনের ছেলে ওয়াহেদ।
জানা যায়, গত বুধবার রাতে উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ছেলে আমিরুল সরদার ওরফে আমিনুর খুন হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে থানায় নিহতের বোন আফরোজা বেগম বাদী হয়ে শাহীনসহ ৩৭ জনের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় পর তদন্ত শুরু করে পুলিশ।
তদন্তের একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইসলাম কবিরাজ ও আবু বক্কর এবং ওয়াহেদকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে শুক্রবার দুপুরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
আদমদীঘি থানার উপ-পরিদর্শক কাওছার আলী জানান, দায়েরকৃত মামলায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চিহ্নিত আসামী শাহীনসহ অন্যান্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।
উল্লেখ্য, গত ৬ বছর আগে যুবদল থেকে নশরতপুর ইউনিয়ন ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে যোগদান করেন শাহীন। এরপর থেকে একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় এলাকায় চাঁদাবাজি, ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে টাকা আদায়, গ্রাম্য শালিস, জমি কেনাবেচাসহ বিভিন্ন রকম অপকর্মে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এ ব্যাপারে একাধিক অভিযোগ তুলেছেন এলাকাবাসী।
সম্প্রতি এক জমি কেনাবেচা নিয়ে দালালি হিসাবে ২ লাখ টাকা পান শাহীন ও তার দল। বুধবার রাতে ওই টাকার ভাগাভাগির ঘটনাকে কেন্দ্র করে দলবদ্ধ ভাবে আমিরুল সরদার ওরফে আমিনুরকে মারপিট করে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেন।


প্রকাশিত: মার্চ ২৫, ২০২৩ | সময়: ৬:১৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর