সর্বশেষ সংবাদ :

আকলিমা-স্বপ্নার নৈপুণ্যে তুর্কমেনিস্তানকে হারাল বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক: চোটের কারণে অধিনায়ক শামসুন্নাহারের অনুপস্থিতিতে ভুগছিল বাংলাদেশ। ত্রাতা হয়ে এলেন আকলিমা খাতুন। করলেন জোড়া গোল। জালের দেখা পেলেন স্বপ্না রানীও। দুই ফরোয়ার্ডের নৈপুণ্যে সওয়ার হয়ে এএফসি অনূর্ধ্ব-২০ এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে শুভ সূচনা পেল দল।
কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শুক্রবার তুর্কমেনিস্তানকে ৪-০ গোলে হারায় বাংলাদেশ। ‘এইচ’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে আগামী রোববার ইরানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। একটি করে জয়ে দুই দলের পয়েন্ট সমান হলেও গোল পার্থক্যে এগিয়ে ইরান।
বলের নিয়ন্ত্রণে শুরু থেকে এগিয়ে বাংলাদেশ। খেলাও হতে থাকল তুর্কমেনিস্তানের অর্ধে। কিন্তু ইরান ম্যাচে দারুণ কিছু সেভ করা গোলরক্ষক আমানবেরদিয়েভা আয়েশার তেমন কোনো পরীক্ষাই নিতে পারছিলেন না আকলিমা-আইরিনরা।
অষ্টাদশ মিনিটে আইরিন খাতুনের দূরপাল্লার শটে গতি ছিল না। বল সোজা যায় গোলরক্ষক বরাবর। দুই মিনিট পর রক্ষণের ভুলে বক্সে বল পেয়ে যান আকলিমা খাতুন। কিন্তু বক্সে ওয়ান-অন-ওয়ান পজিশনে গোলরক্ষকে পেয়েও দুর্বল শটে হতাশা বাড়ান এই ফরোয়ার্ড।
৩৭তম মিনিটে মাঝমাঠ থেকে একক প্রচেষ্টায় আক্রমণে ওঠেন তাগানোভা শাসেনেম। রক্ষণের বাধা পেরিয়ে তুর্কমেনিস্তানের এই ফরোয়ার্ড পোস্ট ছেড়ে বেরিয়ে আসা রুপনা চাকমাকে একা পেয়ে যান। তার শট আটকে বাংলাদেশের ত্রাতা গোলরক্ষক। বাংলাদেশের চাপ সামলে এটাই ছিল তুর্কমেনিস্তানের প্রথম আক্রমণ।
শামসুন্নাহারের (জুনিয়র) অনুপস্থিতি শুরু থেকে টের পাচ্ছিল বাংলাদেশ। অবশেষে প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে স্বস্তির হাসি হাসে দল। স্বপ্না রানীর কর্নার আয়েশা ফিস্ট করলেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। বক্সে জটলার ভেতর থেকে নিখুঁত টোকায় দলকে এগিয়ে নেন আকলিমা।
৭১তম মিনিটে ডান দিক থেকে ইতি খাতুন বক্সে ক্রস বাড়ান, নিখুঁত ফ্লিকে গোলমুখ থেকে জাল খুঁজে নেন আকলিমা। প্রথমার্ধের মতো দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও বিবর্ণ ফুটবল খেলা বাংলাদেশের ডাগআউট নেচে ওঠে ব্যবধান দ্বিগুণের আনন্দে।
বাছাইয়ের প্রথম ধাপে গ্রুপ সেরা দল পাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলার টিকেট। এ কারণে কেবল জয় নয়, গোল ব্যবধানও হয়ে উঠতে পারে গুরুত্বপূর্ণ। সে পাতায় তুর্কমেনিস্তানের বিপক্ষে ইরান ৭-১ গোলে জিতে এগিয়ে ইরান।
তুর্কমেনিস্তান ম্যাচে বাংলাদেশের চাওয়াও ছিল বড় ব্যবধানে জেতা। এক মিনিটের মধ্যে জোড়া গোলে সে সম্ভাবনা জাগায় গোলাম রব্বানী ছোটনের দল। ৮০তম মিনিটে ইতি খাতুনের ক্রসে বক্সের ভেতরে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন স্বপ্না রানী। পরের মিনিটেই বক্সের বাইরে থেকে স্বপ্নার জোরাল শট তুর্কমেনিস্তানের এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে কিছুটা দিক পাল্টে লুটোপুটি খায় জালে।


প্রকাশিত: মার্চ ১২, ২০২৩ | সময়: ৬:৩২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর