সর্বশেষ সংবাদ :

বাঘায় গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় তরিনা বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার সকালে উপজেলার পাকুড়িয়া এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে তরিনার স্বামী রুজদার আলী। এ ঘটনায় গৃহবধুর চাচা আব্দুল মান্নান বাঘা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তরিনা বেগম তিন সন্তানের জননী। তার স্বামীর নাম রুজদার আলী (৫০)। সে মাদকাসক্ত। পরিবারের লোকজন বিভিন্ন ভাবে বুঝিয়ে তাকে মাদক থেকে সরাতে পারেনি। মাদকের টাকার জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায় ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। সর্বশেষ শনিবার বিকেলে এলাকার একজন মুদি ব্যবসায়ী রুজদারের স্ত্রীর কাছে এসে চার হাজার টাকা চাই। এ নিয়ে রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাক বিতান্ডার ঘটনা ঘটে।
এরপর সকালে ঘরের বারান্দায় টিনের চালার সঙ্গে ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায়। সকলে রুজদার আলী তার স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ দেখে চিৎকার দিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। বাঘা পৌরসভার কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে দেখি বারান্দায় লাশ ঝুলছে। পরে বাঘা থানায় খবর দেওয়া হলে তারা লাশ উদ্ধার করে।
বাঘা থানা ওসি (তদন্ত) আবদুল করিম জানান, রবিবার সকালে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে তার স্বামীকে খুজে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


প্রকাশিত: মার্চ ৬, ২০২৩ | সময়: ৬:১৯ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ