বাঘায় পৃথক চারটি মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা :

রাজশাহীর বাঘায় আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রন, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন, চোরাচালান প্রতিরোধ ও নাশকতা প্রতিরোধ বিষয় নিয়ে পৃথক চারটি মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৩-ফেব্রুয়ারী) সকালে নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতারের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সভায় শিক্ষার পরিবেশ,মাদক এবং বাল্য বিয়ে নিয়ে আলোচনা করা হয়।

 

 

এ সময় বাঘা থানা পুলিশের প্রতিনিধি (উপ-পরিদর্শক-এস.আই)প্রজ্ঞাময় বলেন , গত একমাসে অত্র থানায় ২৪ টি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে ১৮ টি মাদক। তিনি সম্প্রতি ঘটে যাওয়া নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধারের সাথে মাদকের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন।

 

 

সকাল ১১ টায় অনুষ্ঠিত সভায় ঐ পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বাঘা মাদক প্রবন এলাকা। সীমান্তবর্তী উপজেলা হওয়ায় এখানে অন্যান্য যে কোন থানার চেয়ে মাদকের প্রবনতা বেশি। আমরা গত একমাসে ২৪ টি মামলা রেকর্ড করেছি। এর মধ্যে ১৮ টি মাদক। এ দিক থেকে বিভিন্ন ঘটনায় আসামী গ্রেফতার করেছি ১২৫ জন। এর মধ্যে ৬৮ জন মাদকের সাথে সম্পৃক্ত।

 

 

তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, আমরা উপজেলার আড়ানী এলাকায় ৬ বছর বয়সী শিশু ঈশা’ নিখোঁজ হওয়ার ৮ দিন পর গত ৯ ফেব্রুয়ারী একটি গমক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করি। এই লাশের কানে স্বর্ণের দুল ছিল। আমরা প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি, দুল ছিনিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে মাদক সেবীদের দ্বারা এ ঘটনা সংঘটিত হতে পারে । তবে খুব শির্ঘই এই খুনের সাথে সম্পৃক্তদের আটক করা হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

 

 

এর আগে উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মাহামুদুল রহমান বলেন, বাঘায় মাধ্যমিক পর্যায়ে বাল্য বিয়ের শিকার শিক্ষার্থীরা স্কুলে এসে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করছে। তিনি পূর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে এখন ক্লাসে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম বলে দাবি করেন। একই সাথে শিক্ষার সুষ্ট পরিবেশ ফিরিয়ে আনার লক্ষে অভিভাবক সমাবেশ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

 

 

 

সভায় বাঘা পৌর সভার মেয়র ও আ’লীগ নেতা আক্কাস আলী বলেন, উন্নত দেশ গড়তে হলে মান সম্মত শিক্ষার কোন বিকল্প নাই। মাদক আমাদের যুব সমাজ কে ধবংস করে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করছে। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। তিনি শিক্ষার বিস্তার লাভে এলাকা ভিত্তিক উঠান বৈঠকসহ স্কুলে-স্কুলে অভিভাবক সমাবেশ করার আহবান জানান।

 

এ সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পুরুষ ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান যথাক্রমে আব্দুল মোকাদ্দেস ও রিজিয়া আজিজ সরকার, বাঘার সকল ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান কর্মকর্তা বৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ , শিক্ষক ও সাংবাদিক সহ সুশীল সমাজের নেত্রীবৃন্দ।

 

উক্ত সভায় মাদক সেবন ও বিক্রি , ভারত থেকে চোরাই পথে গরুর মাংস আনা নিষিদ্ধ , হাটে অতিরিক্ত টোল আদায়, গণহারে যে কোন বিষয় নিয়ে মাইকিং, বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ, দ্রব্য মূল্যের বাজার মনিটরিং ,যানজট নিরসন, ইমো-বিকাশ হ্যাকিং, রাস্তায় অকেজ হওয়া সৌর বিদ্যুৎ ল্যাম্প পোস্ট সংস্কার এবং সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্ম বাধ্যতা মূলক করা সহ বিবিধ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২৩ | সময়: ৫:৩৬ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine

আরও খবর