সর্বশেষ সংবাদ :

দুর্গাপুরে গৃহবধুর শ্লীলতাহানির অভিযোগ: মিমাংসা করে দেয়ার অজুহাত দেখিয়ে ঘুরাচ্ছেন আ.লীগ নেতা

স্টাফ রিপোর্টার, দুর্গাপুর: রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার দেলুয়াবাড়ি ইউনিয়ন এলাকার নারায়ণপুর গ্রামে এক গৃহবধূর (২২) শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন ভিকটিম গৃহবধুর স্বামী। তবে থানায় এজাহার দায়েরের পর থেকে গ্রাম্য সালিসে বিষয়টি মিটিয়ে ফেলার আশ্বাস দিয়ে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের এক প্রভাবশালী নেতা। এমনকি মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতেও বিভিন্ন ভাবে চাপ দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের ওই নেতা।
থানায় দায়ের করা এজাহার সুত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার দুপুরে মাঠ থেকে কলার পাতা কেটে বাড়ি ফিরেছিলো ভিকটিম গৃহবধু। পথিমধ্যে নারায়ণপুর গ্রামের দলিল হাজীর লম্পট পুত্র আব্দুল কাইয়ুম ওরফে দুর্লভ (৩৫) ভিকটিম গৃহবধূকে জাপটে ধরে মাটিতে ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় ওই গৃহবধূ চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করলে ক্ষেতে কাজ করা লোকজন ছুটে আসলে লম্পট দুর্লভ পালিয়ে যায়।
ভিকটিমের স্বামী আলামিন হোসেন বলেন, ঘটনাটি এলাকার মাতাব্বর এবং স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানানো হয়েছে। তারা থানায় এজাহার দিতে পরামর্শ দিলে ঘটনার একদিন পর থানায় লিখিত এজাহার দেয়া হয়েছে।
আলামিন হোসেন অভিযোগ করেন, থানায় এজাহার দায়েরের পর থেকে স্থানীয় ইউপি আওয়ামী লীগের এক নেতা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের এক প্রভাবশালী নেতা অভিযুক্ত লম্পট দুর্লভের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে বিষয়টি মিটিয়ে নিতে হুমকী-ধামকী দিচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি করা হলে বাড়ির বাইরে বের হতে দিবেনা বলে হুমকী দিচ্ছেন। এমনকি ফায়সালা করে দিবেন বলে কালক্ষেপণ করছেন।
জানতে চাইলে থানার এস আই আব্দুল কুদ্দুস বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে একদিন গিয়েছি। পরে তারা মিটিয়ে নিবে বলে জানিয়েছে। ভিকটিম চাইলে লিখিত এজাহারটি মামলা হিসেবে রুজু করা হবে।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৩ | সময়: ৬:৩৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর