সর্বশেষ সংবাদ :

সমাজসেবা কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতিবন্ধীদের সাথে প্রতারণা

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি: বড়াইগ্রামে অভিনব কায়দায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সাথে প্রতারণা করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। এভাবে কমপক্ষে ১০ জন প্রতিবন্ধীর কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।
ক্ষতিগ্রস্থ দু’জন প্রতিবন্ধী ব্যক্তি জানান, গত মঙ্গলবার মোটর সাইকেলে একজন প্রতিবন্ধীসহ দু’জন ব্যাক্তি তাদের কাছে গিয়ে নিজেদের সমাজসেবা অফিসের স্টাফ পরিচয় দেন।
এরপর তারা জানান, সমাজসেবা অফিসে তাদের নামে ২০ হাজার টাকা করে জমা হয়েছে। এ টাকা তোলার জন্য তিন হাজার টাকা করে খরচ দিয়ে একটি ফরম পূরণ করতে হবে। এ সময় তারা প্রতিবেশীদের কাছ থেকে ধার করে টাকা এনে তাদেরকে দিয়ে ফরম পুরণ করে নেন।
বুধবার ফরমসহ সমাজসেবা অফিসে টাকা আনতে গিয়ে তারা জানতে পারেন সমাজসেবা অফিসের কেউ তাদের কাছে যায়নি বা এমন কোন টাকাও দেয়া হয় না। তারা মূলত প্রতারণার শিকার হয়েছেন। তাদের মত উপজেলার আরও ৭-৮ জন প্রতিবন্ধী একই ভাবে প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে।
তাদের দেওয়া সরকারী লোগো সম্বলিত হলুদ রঙের ফরমটিতে লেখা রয়েছে ‘বিদেশী সংস্থা সৌদি আরব সিসিডিবি অনুদানের তালিকা’। রেজি: নং ২০৮৬৫১। সার্বিক সহযোগিতায় জেস ফাউন্ডেশন ও ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ নামে দুটি সংস্থার নাম লেখা থাকলেও ফরমটিতে অফিসের কোন ঠিকানা দেওয়া নাই।
তবে কক্ষ হিসাবে আট সংখ্যার একটি অঙ্ক বসানো রয়েছে। এছাড়া যোগাযোগের জন্য অফিসের মোবাইল নং দেয়া ০১৮৬২-৩৯২০১৬ এবং ০১৯১৭১৪৫৭২১ নম্বর দুটিই বন্ধ পাওয়া যায়।
বৃহস্পতিবার বড়াইগ্রাম থানা এলাকার প্রতারিত প্রতিবন্ধী আবুল হোসেন খান কাঁদতে কাঁদতে বলেন, প্রতিবন্ধিতার পাশাপাশি স্ট্রোক করে একেবারেই অসুস্থ হয়ে পড়েছি। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে নিজেই ঠিকমত খেতে পাই না। তার উপর ধার করে টাকা দিয়ে এমন প্রতারণার শিকার হলাম। এখন আমি এ টাকা কিভাবে শোধ করবো।
উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সোহেল রানা জানান, দু’জন প্রতারিত ব্যাক্তি অফিসে এলে বিষয়টি আমরা জানতে পারি। কারা এমন প্রতারণা করছে তা বুঝতে পারছি না। তবে কেউ যেন প্রতারিত না হয় সে ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টির চেষ্টা করছি।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩ | সময়: ৭:১২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ