রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন ১৩১৭ কোটি টাকার প্রকল্প

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী রোববার রাজশাহীতে দিনব্যাপী সফরে ১ হাজার ৩১৭ কোটি টাকার ২৫টি প্রকল্প উদ্বোধন করবেন। এ দিনই তিনি ৩৭৬ কোটি টাকার আরও ৬টি প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন বলে বাসসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।
এতে বলা হয়, বাস্তবায়ন হওয়া যেসব প্রকল্প উদ্বোধন হতে যাচ্ছে, তার মধ্যে আছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল। নগরীর সিঅ্যান্ডবি ক্রসিংয়ে ৫ কোটি ৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ম্যুরালটি নির্মাণ করেছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন। ম্যুরালটির উচ্চতা ৫৮ ফুট এবং ম্যুরালের মূল অংশে ৫০ ফুট উচ্চতা এবং ৪০ ফুট চওড়া বঙ্গবন্ধুর ছবি রয়েছে।
সীমানা প্রাচীরের উভয় পাশে ৭০০ ফুট জায়গায় টেরাকোটার কাজ করা হয়েছে। গ্যালারি ও ল্যান্ডস্কেপিং সুপার গ্রানাইট দিয়ে সুসজ্জিত। সুসজ্জিত বৈদ্যুতিক বাতিও।
রাজশাহী সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, “ম্যুরালটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের জীবন, কর্ম এবং দেশের স্বাধীনতায় প্রশংসনীয় অবদান ও ত্যাগ সম্পর্কে জানতে অনুপ্রাণিত করবে।”
নগর সংস্থা বাস্তবায়িত আরও যেসব প্রকল্প চালু হচ্ছে, সেগুলো হচ্ছে- নগরীর ছোট বনগ্রাম এলাকায় নির্মিত শেখ রাসেল শিশু পার্ক, মোহনপুর রেল ক্রসিংয়ের ওপর ফ্লাইওভার, চার লেনের সড়ক ও ভদ্রা রেল ক্রসিং থেকে নওদাপাড়া বাস টার্মিনাল পর্যন্ত ধীরগতির যানবাহনের জন্য একটি পৃথক লেনসহ রোড ডিভাইডার।
উদ্বোধন হচ্ছে- বিলসিমলা রেলক্রসিং থেকে সিটিহাট পর্যন্ত ধীরগতির যানবাহনের জন্য আলাদা লেন এবং সড়ক প্রশস্তকরণ, কল্পনা সিনেমা হল থেকে তালাইমারী ক্রসিং সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন কাজ, হাই-টেক পার্ক হয়ে রেন্টুর খারির আড়ৎ থেকে ধলুর মোড় পর্যন্ত নর্দমা ও ফুটপাত নির্মাণ এবং কার্পেটিং। কোর্ট থেকে শাহারতলী ক্লাব পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ।
উদ্বোধনের তালিকায় আছে- সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রায় ১১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত পুঠিয়া থেকে বাগমারা পর্যন্ত মহাসড়ক; প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের (রাকাব) প্রধান কার্যালয়ের ষষ্ঠ তলা থেকে দশম তলা পর্যন্ত ভবন সম্প্রসারণ; প্রায় ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরএমপি) সদর দপ্তর ভবন; সাড়ে ১৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকায় নির্মিত রাজশাহী ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল; প্রায় ২২ কোটি টাকা ব্যয়ে মোহনপুর উপজেলায় নির্মিত কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।
চালু হতে যাওয়া স্থাপনার সারিতে আছে- প্রায় ২৩ কোটি ব্যয়ে নির্মিত রাজশাহী শিশু হাসপাতাল; ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত রাজশাহী মেডিকেল কলেজের প্রশাসনিক ভবন; পৌনে ১৩ কোটি ব্যয়ে নগরীতে নির্মিত বহুতল সমাজসেবা ভবন; রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজে সাড়ে ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে হোস্টেল ভবন সম্প্রসারণ; চারঘাট উপজেলায় ১৭ কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পাঁচতলা একাডেমিক ভবন; সোয়া ৪ কোটি ব্যয়ে নির্মিত রাজশাহী সিভিল সার্জন অফিস; ৬৯৪ কোটি টাকা ব্যয়ে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড নির্মিত চারঘাট ও বাঘা উপজেলায় পদ্মার ভাঙ্গন থেকে বাম তীর রক্ষায় দুই প্রকল্প; প্রায় ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) নির্মিত গ্রামীণ দুটি সড়ক।
এছাড়া রাজশাহী পিটিআইতে প্রায় ৯ কোটি ব্যয়ে নির্মিত অডিটোরিয়াম এবং মহানগরীতে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন উদ্বোধন করবেন সরকার প্রধান।
আর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন- ২৪ কোটি টাকায় তথ্য কমপ্লেক্স ভবন, ৮ কোটি ৩৫ লাখ টাকায় আঞ্চলিক জন প্রশাসন অফিস ভবন, ৬২ কোটি টাকায় শহীদ জননী জাহানারা ইমাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ৫৩ কোটি টাকা ব্যয়ে শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামান বালক উচ্চ বিদ্যালয়, ১৬২ কোটি টাকায় বিকেএসপি’র আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং ৬৬ কোটি টাকা ব্যয়ে রাজশাহী ওয়াসা ভবন নির্মাণ কাজ।


প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৯, ২০২৩ | সময়: ৭:০১ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ