সর্বশেষ সংবাদ :

সড়ক দুর্ঘটনায় পত্নীতলায় গ্রাম পুলিশসহ দুইজন ও সাপাহারে বাইক চালক নিহত

পত্নীতলা ও সাপাহার প্রতিনিধি: পত্নীতলায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক গ্রাম পুলিশ সহ দুইজন এবং সাপাহারে এক মোটর সাইকেল চালক নিহত হয়েছে। পত্নীতলার দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো দুইজন ও সাপাহারের দুর্ঘটনায় বাইকের আরেক আরোহী গুরুতর জখম হয়ে হাসপাতালে রয়েছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরে পত্নীতলা উপজেলার শিহাড়া বাজার মোড়ে ও সাপাহারের তেঘরিয়া মোড়ে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।
পত্নীতলায় নিহতরা হলেন আমন্ত দিঘীপাড়া এলাকার মৃত গজিম উদ্দিনের ছেলে গ্রাম পুলিশ সুরত আলী (৫০) এবং কাষ্টবাই ডাঙ্গাপাড়া এলাকার মৃত খবির উদ্দীনের ছেলে গোলাম মোস্তফা (৭০)। ঘটনায় উপজেলার কাষ্টবাই ডাঙ্গাপাড়া এলাকার মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে দোকানী আকবর আলী (৭২) এবং একই এলাকার মৃত গফুর উদ্দীনের ছেলে ছমির উদ্দীনকে (৭৮) আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয়রা হাসপাতালে ভর্তি করান।
পত্নীতলা থানা সুত্র জানায়, দুপুরের দিকে আগ্রাদ্বীগুন হতে আসা এসকেএফ ঔষধ কোম্পানির একটি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে শিহাড়া বাজার মোড়ের আকবর আলীর পান, বিড়ি-সিগারেটের দোকানে বসে থাকা কয়েকজনের পেছনে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই গ্রাম পুলিশ সুরত আলীর মৃত্যু হয়।
এ অবস্থায় আহত দোকানী আকবর আলী, গোলাম মোস্তফা ও ছমির উদ্দীনকে উদ্ধার করে সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। আহত গোলাম মোস্তফার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় পত্নীতলা থানা পুলিশ ঔষধ কোম্পানীর গাড়ীটির চালকসহ আটক করেছে।
অন্যদিকে সাপাহার প্রতিনিধি জানান, মোটর সাইকেল ও ট্রলির মুখেমুখী সংঘর্ষে ফারুক হোসেন (৪০) নামের এক মোটর সাইকেল চালকের মৃত্যু ও আব্দুল বারিক (৩৫) নামের অপর মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত হয়েছেন।
মৃত মোটর সাইকেল চালক পাশর্^বর্তী পত্নীতলা উপজেলার অর্জনপুর ভাবুক গ্রামের জসিমউদ্দীনের ছেলে ও আহত বারিক বাঁকরইল গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে বলে জানা গেছে।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে বৃহস্পতিবার দুপুরে সাপাহার পোরশা পাকা রাস্তার তেঘরিয়া মোড়ের অদুরে একটি ইট বোঝাই ট্রলি ও এক মোটর সাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষ বাধে।
এসময় মোটর সাইকেল চালক ফারুক ও অপর আরোহী বারিক মোটর সাইকেল হতে ছিটকে রাস্তায় পড়ে যান। মাথায় লাগা প্রচন্ড আঘাতে ঘটনাস্থলেই চালক ফারুক হোসেনের মৃত্যু হয়। সাপাহার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃতু ঘোষণা করেন। অন্যদিকে আহত বারিকের অবস্থা আশংকজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।
সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি হুমায়ন কবির এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৭, ২০২৩ | সময়: ৬:৩৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ