সর্বশেষ সংবাদ :

বিদ্যুতের আগুনে কৃষকের বসত-বাড়ি ছাই

তাড়াশ প্রতিনিধি: তাড়াশ উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের মহেশরৌ হালী গ্রামে মোহাম্মদ রায়হান আলী (৩২) বিদ্যুতের আগুনে বসত বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটনা ঘটে।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় অসহায় গরিব কৃষক রায়হান আলীর একটি ঘরের মধ্যে সমস্ত জিনিসপত্র ছিল, তার কচি কচি তিনটি ছেলে মেয়ের শীতের পোশাক, তার বাবা মার পরিধানের পোশাক, রায়হানের স্ত্রী এবং তার পরিধানের সমস্ত পোশাক, এই একটি ঘরের মধ্যে ছিল এবং ৫ হাজার টাকা সহ আলমারি খাট শোকেস আরো অনেক সাংসারিক জিনিসপত্র, রায়হানের শেষ সম্বল ছিল ছেলেমেয়েদের খাবার এক কোলা চাল যা নিমিষেই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এখন শুধু রায়হান বেঁচে আছে তার চোখের জল টুকু নিয়ে।
ওই গ্রামের শফিকুল ইসলাম জানান রায়হান হোসাইন খুবই দরিদ্র এবং অসহায় একজন গরীব কৃষক ছিলেন। তার পরিবারের জন্য যা কিছু করেছিলেন তিনি মানুষের বাড়ির শ্রমিক হিসেবে কাজ করে, এখন তার বাড়িতে কোন খাদ্য নেই, রায়হান আলী বর্তমানে মানুষের বাড়ি দিন যাপন করছে তার স্ত্রী এবং ছেলে মেয়েকে নিয়ে, তার ছেলে মেয়ের শীতের কোন বস্ত্র নেই, রায়হান এবং তার স্ত্রী শীতের বস্ত্র নিয়ে, তার মা বাবার শীতের পোশাক নেই, তারা বর্তমানে খুবই কষ্টকর ও অমানুষিক মানবতা জীবন যাপন করেছে। এমনকি তারা যে পোশাক পড়ে আছে সেই পোশাক ছাড়া অন্য কোন পোশাক তাদের সম্মুখে নেই।
একই গ্রামের লুৎফর হোসেন জানান, রায়হানের বাড়িতে চাল নাই, ডাল নাই, আটা নাই, নেই বলতে কোন কিছুই নেই, এমনকি তার পোশাক এবং তার ছেলে মেয়ের পোশাক সহ তার স্ত্রীর পোশাক পর্যন্ত তাদের নেই, তাদের পরনের কাপড়টুকু ছাড়া, বর্তমানে কোন কিছুই নেই।
তিনি আরো বলেন এই মুহূর্তে নওগাঁ ইউনিয়নের সমস্ত নেতা কর্মীর প্রতি আহ্বান এবং মহেশরৌহ হালী গ্রামের সমস্ত মানুষের উচিত তাকে সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া।
নওগাঁ ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আফজাল হোসেন বলেন, নওগাঁ ইউনিয়নবাসীর কাছে আমার দাবি, তিন নম্বর ওয়ার্ডবাসীর কাছে আমার দাবি, তাড়াশ উপজেলার নেতা কর্মীদের কাছে আমার দাবি, সিরাজগঞ্জ জেলাবাসীর কাছে আমার দাবি, এবং দেশের মানুষের কাছে আমার দাবি এই পরিবারকে সাহায্য সহযোগিতা ও সচ্ছল করার জন্য ০১৭৭৪৯৫৫৭৬৫ বিকাশ নম্বরে অর্থ সহায়তা করুন।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৪, ২০২২ | সময়: ৬:৫৪ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ