রাজশাহীতে সোনালী ব্যাংক থেকে গ্রাহকের ৫ লাখ টাকা খোয়া

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী নগরীর আলুপট্টিতে সোনালী ব্যাংকের করপোরেট শাখা থেকে গ্রাহকের ৫ লক্ষ টাকা খোয়া গেছে। সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের এক সদস্য কৌশলে গ্রাহকের টাকার ব্যাগ নিয়ে মুহুর্তেই উধাও হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনার পর তাৎক্ষনিক পুলিশকে জানানো হলেও রাত পর্যন্ত টাকা উদ্ধার হয়নি। পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে নিয়ে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে প্রতারককে শনাক্ত করার চেষ্টা করছে। তবে ব্যাংকের অভ্যন্তর থেকে টাকা খোয়ানোর ঘটনার গ্রাহকদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
পুলিশ ও ব্যাংক সুত্রে জানা গেছে, নগরীর বালিয়া পুকুর শিক্ষা নিকেতনের সহকারি শিক্ষক আব্দুল গফুর সোনালী ব্যাংকের আলুপট্টি শাখায় নগদ ৫ লক্ষ টাকা জামা দিতে যান। এরপর টাকার ব্যাগ পাশে রেখে জমা বই পূরণ করছিলেন। এরই মধ্যে তার পাশে থাকা টাকার ব্যাগটি হাওয়া হয়ে যায়। সংঘবদ্ধ চক্রের সদস্যরা এই টাকার ব্যাগটি নিয়ে মুহুর্তে সটকে পড়ে। এ ঘটনার পর তিনি সাথে সাথে বিষয়টি পুলিশ ও ব্যাংক কর্মকর্তাদের অবহিত করেন।
সিসিটিভিতে টাকা নিয়ে উধাও হওয়ার দৃশ্য ধরা পড়ে। খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ গিয়ে সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধার করে। তাতে দেখা যায় একজন ব্যক্তি টাকার ব্যাগ তুলে নিয়ে চলে যাচ্ছে। বেশ কিছু সময় ধরে গ্রাহক সেজে ওই ব্যক্তি ব্যাংকে ঘুরাঘুরি করছিলেন। তিনি মাস্ক পড়ে ছিলেন।
বোয়ালিয়া মডেল থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ আসামীকে ধরতে অভিযানও শুরু করেছে। এ ঘটনায় আবদুল গফুর বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৩, ২০২২ | সময়: ৫:৩৩ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ