চাঁদা নিয়ে ভূমি’র কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে মারপিট, ঘরোয়া বৈঠকে মিমাংসা

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘিতে চাঁদার বিষয়কে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ঘটনাটি ঘটে। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের না করে দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা চেয়ারম্যান একটি ঘরোয়া বৈঠকের মাধ্যমে ঘটনাটির মিমাংসা করেন।

জানা যায়, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানের নামে ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম ও যুবলীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাকসহ কয়েকজন ব্যক্তি ইউনিয়ন ভূমি অফিসে চাঁদা নিতে যান। এসময় ইউনিয়ন ভূমি সহকারী অফিসার আতোয়ার হোসেন তাদেরকে ওই অফিসের আব্দুস ছালাম নামে এক দালালের কাছ থেকে চাঁদার টাকা নিতে বলেন। তখন নজরুল ইসলাম ও আব্দুর রাজ্জাক ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি শুরু করে। একপর্যায় উত্তেজিত হয়ে ভূমি সহকারী আতোয়ার হোসেন ও কম্পিউটার অপারেটর গোলাম রব্বানিকে মারধর করে। এতে করে তারা আহত হন। এরপর স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি শাহিন হোসেনেরসহ শতাধিক লোকজন জমা হয়ে ভূমি অফিসে ভাংচুর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই কর্মচারীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

আদমদীঘি থানার উপ পরিদর্শক তারেক হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।
ওখান থেকে দুই কর্মচারীকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ হয়নি।

আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার টুকটুক তালুকদার জানান, চাঁদার বিষয় নিয়ে ঘটনা। ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী কর্মকর্তা আতোয়ার ও ঘটনাস্থলে যাদের সাথে ঝামেলা তাদের ডাকা হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে মিমাংসার মাধ্যমে ঘটনাটির সমাধান করা হয় বলে জানান তিনি।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৫, ২০২২ | সময়: ৭:৫০ অপরাহ্ণ | সানশাইন

আরও খবর