বাঘায় গণসংযোগে এগিয়ে শাহিনুর রহমান পিন্টু

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা :আগামী ২৯ ডিসেম্বর রাজশাহীর বাঘা পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়ন যাচাই-বাছাই এর পর সরব হয়ে উঠেছে প্রচার-প্রচারনা। এখানে মেয়র পদে ৮ প্রার্থীর মধ্যে গণসংযোগে এগিয়ে রয়েছে নৌকার মাঝি শাহিনুর রহমান পিন্টু। উদিয়মান তরুন এই যুবক চলমান প্যানেল মেয়র হিসাবে গত ৫ বছর পৌর এলাকায় নানা মুখি উন্নয়ন-সহ ভোটারদের বিভিন্ন ভাবে সহায়তা প্রদান করায় তাঁর জনসমর্থন অনেকটায় এগিয়ে। স্থানীয় লোকজন মনে করছেন , নৌকা প্রতীক বিজয় হলে এলাকার উন্নয়ন হবে। এদিক থেকে শাহিনুর রহমানের কোন বিকল্প নাই।

সংশ্লিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, এখানে মেয়র পদে ৮ জন, সংরক্ষিত নারী কমিশনার পদে ১৩ এবং পুরুষ কমিশনার পদে ৪০ জনের মনোনয়ন বৈধ হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। আগামী ১০ডিসেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহার এবং ১১ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। এরপর পৌর এলাকায় ছেঁয়ে যাবে পোষ্টার। শুরু হবে মাইকিং । সেই সাথে প্রতিটা ওয়াডে গড়ে উঠবে একটি করে নির্বাচন মূলক প্রচারণা ক্যাম্প। তবে মেয়র পদে দু’-একজন প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা প্রত্যার করে নেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে আনেকে মন্তব্য করেছেন।

এখানে মেয়র পদে যারা গণসংযোগ ও প্রচারনা চালাচ্ছেন তাদের মধ্যে জনসমর্থনে এগিয়ে রয়েছেন সরকার দলীয় সংগঠন ও আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী শাহিনুর রহমান পিন্টু। তিনি ইতোমধ্যে নৌকার প্রতীক সম্বলিত পৌষ্টারে ছেয়ে দিছেন পৌর এলাকার ৯ টি ওয়ার্ড। তার পক্ষে ভোট করছেন আ’লীগের সকল সহযোগী সংগঠন। এর মধ্যে ৬ ডিসেম্বর সকালে দলীয় কার্যালয়ে বর্ধিত সভা করে মাঠে নেমেছে উপজেলা ও পৌর যুবলীগের নেত্রীবৃন্দ।

বাঘা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান নিপ্পন বলেন , শাহিনুর রহমান পিন্টু বাঘা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এবং চলমান প্যানেল মেয়র। তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় আমরা যুবলীগের পক্ষ থেকে স্থানীয় সাংসদ এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ। আমরা সকল নেতা-কর্মী শাহিননুর রহমানকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দারে-দারে যাবো।

বাঘা পৌর এলাকার ভোটার শহিদুল ইসলাম বলেন, যারা মেয়র পদে ভোট করছেন তাদের মধ্যে শাহিনুর রহমান উদিয়মান যুবক। সে গত পাঁচ বছর প্যানেল মেয়রের দায়িত্বে থাকা অবস্থায় অনেক মানুষকে নানা ভাবে সহায়তা করেছেন। এ কারনে সে এলাকার গরিব-দুখিদের কাছে জনপ্রিয়। তাঁর মতে, এখানে মেয়র হিসাবে এবার শাহিনুর রহমানের কোন বিকল্প নাই।

এদিকে নৌকার মাঝি শাহিনুর রহমান পিন্টু বলেন, আমি গত পৌর নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে কমিশনার নির্বাচিত হয়ে ছিলাম। এরপর অনেক চ্যালেঞ্জের মুখে ভোট করে প্যানেল মেয়র নির্বাচিত হয়। আর তখন থেকে আমার মধ্যে পৌর বাসীর জন্য একজন সেবক হওয়ার মানুষিকতা সৃষ্টি হয়। আমি গত পাঁচ বছরে নিজ ওয়ার্ড সহ সকল ওয়ার্ডের জনসাধারণের সাথে মিলে-মিশে চলছি। আমার উন্নয়ন দৃশ্যমান। আমি কাওকে হয়রানি করিনি। আমার কাছে কেও কিছু চেয়ে ফিরে গেছে এ রকম নজির নেই। আমি পৌর মেয়র হওয়ার জন্য এবার দলীয় মনোনয়ন চেয়ে ছিলাম। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়ে সম্মানীত করেছেন। আমি এ সম্মান অক্ষুন্ন রাখতে চাই।

বাঘা উপজেলা নির্বাচন অফিসার মজিবুল আলম জানান, এই পৌর সভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩১ হাজার ৬৫৯ । এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ হাজার ৮১২ ও নারী ভোটার ১৫ হাজার ৮৫৭ জন। এখানে ইভিএমের মাধ্যমে ১১ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থীতা প্রত্যাহার ১০ ডিসেম্বর এবং প্রতীক বরাদ্দ হবে ১১ ডিসেম্বর।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০২২ | সময়: ১০:০৬ পূর্বাহ্ণ | সানশাইন

আরও খবর