বেলজিয়ামকে হারিয়ে দিলো মরক্কো

স্পোর্টস ডেস্ক : প্রথম ম্যাচে ড্র করে ক্রোয়েশিয়াকে রুখে দিয়েছিল মরক্কো। দ্বিতীয় ম্যাচে এসে আরেক অঘটন ঘটিয়ে দিলো তারা। এবার তাদের শিকার টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট শক্তিশালী দল বেলজিয়াম। আব্দুলহামিদ সাবিরি ও জাকারিয়া আবোখোলালের গোলে রেড ডেভিলসদের ২-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে মরক্কো।
মরক্কোর এই জয়ে জমে উঠলো এফ গ্রুপের নকআউটে ওঠার লড়াই। দুই ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে মরক্কো। সমান ম্যাচে বেলজিয়ামের অর্জন তিন পয়েন্ট। এক ম্যাচ খেলা ক্রোয়েশিয়ার পয়েন্ট এক। কোনও পয়েন্ট না পাওয়া কানাডা টেবিলের তলানিতে।
এদিন ম্যাচের প্রথম থেকে অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে প্রভাব বিস্তার করে খেলতে শুরু করে বেলজিয়াম। বল পজিশন নিজেদের দখলে আক্রমণ গড়ে তোলার চেষ্টা করে তারা। ছেড়ে কথা বলেনি রক্ষণ সামলে আক্রমণে যাওয়ার নীতি নেওয়া মরক্কোও। ম্যাচের প্রথমার্ধে একাধিক গোলমুখী অভিযান গড়ে তোলে বেলজিয়াম। কিন্তু কিছুতেই কাজের কাজটা হয়নি।
৫ ও ১৭তম মিনিটে মরক্কো শিবিরে আঘাত হেনে গোলবারের সামনে থেকে দুর্দান্ত দুটি সুযোগ হাতছাড়া হয় তাদের। প্রথমটি মিস করেন স্ট্রাইকার বাতশুয়াই ও পরেরটি মিডিফিল্ডার ওনানা।
পরে কাউন্টার অ্যাটাকে যায় মরক্কো। ম্যাচের ২৮ ও ৩৫ মিনিটের মাথায় বেলজিয়ামের ডেরা থেকে খালি হাতে ফিরে আসে মরক্কোর স্ট্রাইকাররা।
প্রথমার্ধের অতিরিক্ত মিনিটে মরক্কোর ফ্রিকিকে বেলজিয়ামের জালে বল জড়ায়। গোলের উদযাপনে প্রথমার্ধের সময় শেষ হলেও নাটকীয়তা তখনও বাকি। ভিআর সিদ্ধান্তে অফসাইডের কারণে গোল বাতিল করেন রেফারি। ফলে গোলশূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় উভয় দল।
বিরতির পর গোলের খোঁজে মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে দুই দল। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে ডান দিক থেকে অ্যাটাকে যায় মরক্কো। সোফিয়ান বোফালের নেওয়া শট চলে যায় পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে ফের আক্রমণে যায় মরক্কো। সুযোগ তৈরি করলেও তা থেকে গোল করতে ব্যর্থ হয় মরক্কো। অন্যদিকে ম্যাচের ৬৪ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে মার্টিনেজের নেওয়া শট আটকে দেন ইয়াসিন বোনো।
ম্যাচের ৭৩ মিনিটে গোলের দেখা পায় মরক্কো। ডান দিক থেকে পাওয়া ফ্রিকিক থেকে দারুণ শটে গোল করে মরক্কোকে এগিয়ে দেন আব্দুলহামিদ সাবিরি। এরপর গোল শোধে মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে বেলজিয়াম। ম্যাচের ৮২ মিনিটে পাওয়া কর্নার থেকে ভেসে আসা বলে হেড করেন থমাস জ্যান ভ্যারটোনগার। তবে তা চলে যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে।
ম্যাচের ৮৫ মিনিটে আক্রমণে যায় মরক্কো। তবে তা আটকে দেন বেলজিয়ামের ডিফেন্ডাররা। অন্যদিকে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে মরক্কো রক্ষণে একের পর এক আক্রমণ চালায় বেলজিয়াম।
নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে অতিরিক্ত সময়ে আবারও এগিয়ে যায় মরক্কো। ফের কাউন্টার অ্যাটাক থেকে গোল করে মরক্কোর লিড বাড়িয়ে দেন বদলি নামা জাকারিয়া আবোখোলাল। ২-০ গোলে জয় পায় মরক্কো।


প্রকাশিত: নভেম্বর ২৮, ২০২২ | সময়: ৫:৩১ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ