বাঘায় ড্রাগন চাষে লাভবান হচ্ছে শিক্ষিত যুবক মামুনুর রশিদ

নুরুজ্জামান,বাঘা : কৃষি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষিত যুবকদের বিকল্প নাই। যার উদাহারণ বাঘা উপজেলার বাউসা গ্রামের উদ্যোক্তা মামুনুর রশিদ। তিনি ২১ বিঘা জমিতে সু-মিষ্ট রসালো ফল ড্রাগন চাষ করে ইতোমধ্যে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। তার গড়া বাগান দেখতে ছুটে আসছেন শত-শত মানুষ।

সরেজমিন বাউসা গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বাড়ি থেকে সামান্য দুরে একটি ফাঁকা জমিতে সবুজের সমারোহ। সারিবদ্ধ ভাবে দাঁড়িয়ে আছে বিদেশী ফলের গাছ ড্রাগন । স্বপ্নীল পরিপাটি এ বাগানটি গড়ে তুলেছেন তরুন উদ্যোক্তা মামুনুর রশিদ। গত বছর এ ফলের চাষাবাদ শুরু করে তিনি যতটা লাভবান হয়েছেন এবার আসা করছেন তার চেয়ে পাঁচগুন বেশি লাভবান হবেন। তার গড়া এ বাগান দেখে অনেকেই উৎসাহিত হচ্ছে।

মামুনুর রশিদ একজন শিক্ষিত যুবক।জীবন-জীবিকার তাগিদে বেশ কয়েকটা চাকরির চেষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ার এক পর্যায় বাপ-দাদার পুরনো পেশা কৃষি কাজে নেমে পড়েছেন । তিনি গত বছর ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া তার এক বন্ধু এবং বাঘা উপজেলা কৃষি অফিসার শফিউল্লাহ সুলতানের পরামর্শে সামান্য জমিতে পরীক্ষামূলক বিদেশী ফল ড্রাগন চাষ শুরু করেন । এরপর ক্রমান্বয়ে লাভের মুখ দেখায় এখন বাণিজ্যিক ভাবে ২১ বিঘা জমিতে এই ফলের চাষ শুরু করেছেন। তার বাগানে কর্মরত রয়েছে প্রায় ১০-১৫ জন শ্রমিক।

ড্রাগন চাষ সম্পর্কে মামুনুর রশিদ বলেন, এই ফল চাষে সামান্য পরিমান সার ও কিটনাশক লাগে। তিনি গত বছর বাগান থেকে প্রতি কেজি ড্রাগন ৩০০ টাকা পাইকারি দরে বিক্রি করে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকা আয় করেছেন। তবে এবার আশা করছেন আবহাওয়া অনুকুল এবং কোন রোগ বালাই না হলে তার চেয়ে পাঁচগুন বেশি লাভবান হবেন।

এ বিষয়ে বাঘা উপজেলা কৃষি অফিসার শফিউল্লাহ সুলতান জানান, “অন্য যে কোন ফসলের তুলনায় ড্রাগন চাষ লাভজনক। চারা লাগানোর এক বছরের মধ্যে ফল আসতে শুরু করে। “পুষ্টি-গুণ, আকার-আকৃতি ও দামের কারণে বাজারে এই ফলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। ক্যাকটাস জাতীয় গাছ হওয়ায় রোগ বালাইও কম। তাই চাষিরা সহজে এই ফল চাষ করতে পারে।

তিনি বলেন “শীত মওসুমে প্রায় চার মাস ছাড়া বছরের বাকি আট মাস ড্রাগনের ফলন অব্যাহত থাকে। ১৫ দিন পর-পর এ ফল তোলা যায়”। অত্র উপজেলায় গত বছর থেকে একজন শিক্ষিত তরুন মামুনুর রশিদ এই ফলের চাষাবাদ শুরু করেন। তবে বর্তমানে তার দেখে অনেকেই আগ্রহী হচ্ছেন।


প্রকাশিত: নভেম্বর ২৬, ২০২২ | সময়: ৮:৫৯ পূর্বাহ্ণ | সানশাইন