সর্বশেষ সংবাদ :

বাঘায় আ’লীগের বর্ধিত সভায় ৫ জনের নাম প্রস্তাব, ঠাঁই পেলোনা আক্কাছ

স্টাফ রিপোর্টার :
আগামী ২৯ ডিসেম্বর রাজশাহীর বাঘা পৌরসভা নির্বাচন । এই নির্বাচনকে সামনে রেখে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীদের নামের তালিকা সংগ্রহে পৌর আ’লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার আড়ানীতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাড়ির সামনে তিনি নিজে উপস্থিত থেকে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ৫ জনের নাম প্রস্তাব উঠে। তবে শেষ পর্যন্ত কাগজে লিপিবন্ধ করা হয়নি একাধিক বিতর্কিত কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত আক্কাছ আলীর নাম।

বিকেল ৪ টায় বাঘা পৌর আ’লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস সরকার এর সভাপতিত্বে আয়োজিত এ সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য দেন চারঘাট- বাঘা থেকে তিন তিনবার নির্বাচিত সাংসদ,বাঘা উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শাহরিয়ার আলম। তিনি আসন্ন বাঘা পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে মেয়র পদে নৌকা প্রত্যাশী প্রার্থীদের নাম শুনতে চান। এ সময় দলীয় প্রার্থী হওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে যাদের নাম প্রস্তাব উঠে আসে তাঁরা হলেন- রাজশাহী জেলা আ’লীগের সহভাপতি ও বাঘার কৃতিসন্তান আমানুল হাসান দুদু, পৌর সভার চলমান প্যানেল মেয়র এবং উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রহমান পিন্টু, বাঘা পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মামুন হোসেন , উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি এবং সাবেক উপজেলা নারী ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মাসুদ লতা ও গত পৌর নির্বাচনে নৌকা পেয়েও পরাজয় বরণকারি প্রার্থী আক্কাছ আলীর নাম। তবে সভার সিদ্ধান্ত ক্রমে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পাঠানোর তালিকায় বাদ পড়ে যায় একাধিক বিতর্কিত কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত আক্কাছ আলীর নাম। তিনি চলতি বছরের ২১ মার্চ কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে উপজেলা আ’লীগের সম্মেলনে হামলা করায় তার নাম লিপিবদ্ধ না করার ঘোষনা দেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সাইফুল ইসলাম দুলাল ও সাংগঠনিক সম্পাদক আলফোর রহমান ।

তাঁরা উভয় পৃথক-পৃথক বক্তব্যে বলেন, দলের মধ্যে বিশৃঙ্খলাকারী কোন ব্যাক্তি দলে থাকার অধিকার নেই। আপনারা সকলেই অবগত রয়েছেন ঐদিন আক্কাছ আলীকে দল থেকে বহিস্কারের ঘোষনা দেন কেন্দ্রীয় আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন ও রাজশাহী জেলা আ’লীগের সভাপতি বাবু অনিল কুমার । পরবর্তিতে বাঘা উপজেলা আওয়ামীলীগ জেলা আওয়ামীলীগের কাছে আক্কাছ আলীকে দল থেকে বহিস্কারের জন্য লিখিত আবেদন করলে সেটি সুপারিশ করে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পাঠানো হয়।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, বিএনপি এখন জামাতের ঘাড়ে চড়ে বেড়াচ্ছে। মিথ্যা দিয়ে রাজনীতি করা যাইনা। তারা অনেক দিন পর জনসভা করার অনুমতি পেয়ে কয়েকটি বিভাগীয় সমাবেশ মিলে যে পরিমান লোক দেখিয়েছে আমরা যশোর একটি সমাবেশ করে তার তিনগুন বেশি লোকবল দেখিয়েছি। তিনি পৌর নির্বাচনে যেই নৌকা প্রতীক পাক-না কেন তার পক্ষে সকল নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা সহ দলকে গতিশীল করার আহবান জানান।

উক্ত বর্ধিক সভায় উপস্থিত ছিলেন বাঘা উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সাবেক সহ সভাপতি আজিজুল আলম, রাজশাহী জেলা আ’লীগের সহ সভাপতি ও বাঘার কৃতিসন্তান আমানুল হাসান দুদু, বাঘা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সদস্য মাসুদ রানা তিলু, সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন ও সিরাজুল ইসলাম মন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির , পৌর সভার চলমান প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু, বাঘা পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মামুন হোসেন , উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি ফাতেমা মাসুদ লতা, আড়ানী পৌর আ’লীগের সভাপতি মতিউর রহমান মতি, সাধারণ সম্পাদক রিবন আহাম্মেদ বাপ্পি প্রমুখ।ৎ

 

সানশাইন/তারেক


প্রকাশিত: নভেম্বর ২৫, ২০২২ | সময়: ৭:৪১ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine