বাগমারায় সাবেক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লিজকৃত পুকুর দখলের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, বাগমারা: রাজশাহীর বাগমারায় লিজকৃত পুকুর জবর দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আউচপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাবেক চেয়ারম্যান সরদার জান মোহাম্মাদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ হয়েছে।
উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের মুগাইপাড়া মৌজায় সর্বমোট ৫৫ বিঘা পুকুরটির জমির মূল মালিকদের নিকট থেকে বিভিন্ন পরিস্থিতি ও অবস্থার প্রেক্ষিতে লিজ গ্রহণ করেন আবুল কাশেম কবিরাজের পুত্র মাসুদ রানা। লিজের সময়সীমা ১৪২৮ বঙ্গাব্দের ১লা বৈশাখ হতে ১৪৩৮ বঙ্গাব্দের ১লা বৈশাখ পর্যন্ত।
পরবর্তীতে অপর শরিক মারুফ হাসানের সাথে মাসুদ রানার পারিবারিক কলহের জেরে ১২ নভেম্বর ২০২১ সালে মারুফ, ভিকটিম মাসুদ রানার ক্ষতি করার মানসে সরদার জান মোহাম্মদকে নিয়ম বর্হিভূত ভাবে সাবলিজ প্রদান করেন। এরপর থেকে আউচপাড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার জান মোহাম্মাদ দলীয় শক্তি ও ক্যাডার বাহিনী ব্যবহার করে এলাকায় নৈরাজ্যের সৃষ্টি করে চলেছেন।
গত ১২ ই নভেম্বর ২০২২ ইং তারিখে সরদার জান মোহম্মদ তাঁর বাহিনী নিয়ে এসে পুকুর জবর দখলের চেষ্টা করেন। ৯৯৯ এ ফোন করলে ভুক্তভোগী মাসুদ রানা রক্ষা পান। গত ১৩ নভেম্বর ২০২২ সরদার জান মোহাম্মাদ একই কায়দায় ৩৫/৪০ জন লোক দিয়ে মাসুদ রানার পুকুর থেকে প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার মাছ ধরে বিক্রয় করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এই পুকুর কেন্দ্রিক একাধিক হামলা হয়েছে। প্রশাসন নজরদারি না বাড়ালে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি এবং জানমালের ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। এ ঘটনায় আউচপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং সাবেক চেয়ারম্যান সরদার জান মোহাম্মাদকে প্রধান আসামি করে আদালতে মামলা করা হয়। সাবেক চেয়ারম্যান জান মোহাম্মাদের মুঠোফোনে কল করলে তিনি রিসিভ করেননি।
মাসুদ রানা গত ১৪ নভেম্বর ২০২২ তারিখ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আবেদন করলে, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে বিজ্ঞ আদালত ১৪৪ ধারা জারি করেন। ভুক্তভোগী মাসুদ রানা মাছ চাষ ও রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন বলে বাগমারা থানা পুলিশকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আদেশ জারি করা হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাগমারা থানার ওসি রবিউল ইসলাম বলেন, বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক সেখানে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


প্রকাশিত: নভেম্বর ১৭, ২০২২ | সময়: ৬:২৯ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ