জালিয়াতির মামলায় গ্রেফতারের পর এখন পুলিশ রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীকে জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থআত্মসাতের অভিযোগে করা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। পরে তাদের আদালতের মাধ্যমে একদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। চলতি বছরের শুরুতে তাদের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা হয়।
মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটের কর্মকর্তা আফম আল কিবরিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, চলতি বছরের জানুয়ারিতে ইমো হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে অর্থআত্মসাতের অভিযোগে রাজধানীর খিলগাঁও থানায় তাদের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা হয়।
এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত রবিবার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট অভিযান চালিয়ে তাদের রাজশাহী থেকে আটক করে। পরে এই মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়। সোমবার রাবির দুই শিক্ষার্থীসহ নাটোরের রবিন নামে একজনকে ঢাকা সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে তোলে পুলিশ। পরে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।
সংশ্লিষ্ট সূত্রের তথ্য মতে, অভিযুক্তরা দীর্ঘদিন থেকে পরস্পর যোগসাজশে ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে প্রবাসীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ইমো ব্যবহারকারীদের আইডি হ্যাক করতেন। চক্রের সদস্যরা প্রথমে ইমো ব্যবহারকারী প্রবাসীদের নম্বর সংগ্রহ করেন। পরে তারা কৌশলে টার্গেট করা প্রবাসীর ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নেন। পাসওয়ার্ড পাওয়ার পর তারা সেই আইডি থেকে পাঠানো কথোপকথন ও মেসেজ পর্যবেক্ষণ করেন। একপর্যায়ে হ্যাক করা আইডি ব্যবহার করে স্বজনদের দুর্ঘটনা বা অসুস্থতার কথা বলে প্রবাসীদের বিকাশে বড় অঙ্কের টাকা পাঠাতে বলেন।
এ বিষয়ে রাজধানীর খিলগাঁও থানার নিয়মিত মামলার ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে অপরাধীদের গ্রেফতার করে সিটিটিসির সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ইউনিটের একটি দল।
এর আগে গত ১৩ নবেম্বর সকালে রাজশাহীর চন্দ্রিমা থানার চরপাড়া এলাকার একটি ছাত্রাবাস থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে রাবির দুই শিক্ষার্থীকে তুলে নেওয়া হয়। তারপর থেকে তারা নিখোঁজ ছিলেন। তাদের মধ্যে একজন নাটোরের শাকিব খান, অন্যজন যশোরের রেজোয়ান ইসলাম। তারা উভয়েই রাবির চারুকলা অনুষদের চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী। এছাড়া একই অভিযোগ নাটোরের রবিন নামে একজনকেও গ্রেফতার করা হয়।


প্রকাশিত: নভেম্বর ১৬, ২০২২ | সময়: ৬:১২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ