সর্বশেষ সংবাদ :

রুয়েটে কর্মচারি সমিতির নির্বাচন না দেয়ায় আইনি নোটিশ

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) কর্মচারি সমিতির মেয়াদ শেষ হলেও দায়িত্ব ছাড়েন নি নেতৃবৃন্দ। নির্বাচন দিতে ও অবৈধভাবে দায়িত্বে থাকা নেতৃবৃন্দকে দায়িত্ব হস্তান্তর করতে আইনি নোটিশ দিয়েছে সমিতির সদস্যগণ।
জানা গেছে, চলতি বছরের ২২ মার্চ সমিতির কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। কমিটির নীতিমালা (গঠনতন্ত্র) অনুযায়ী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত হয়নি। এমনকি আগের মেয়াদের প্রতিনিধিরা দায়িত্ব হস্তান্তর করেননি। এতে সমিতির সদস্যদের মাঝে চাপা ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে নির্বাচন দিতে ও অবৈধভাবে দায়িত্বে থাকা নেতৃবৃন্দকে দায়িত্ব হস্তান্তর করতে ৩০ অক্টোবর এ্যাড. মমতাজ উদ্দিন আহম্মেদ বাবু স্বাক্ষরিত আইনি নোটিশ দেয়া হয়েছে।
আইনি নোটিশ থেকে জানা যায়, আগের মেয়াদের নির্বাচিতরা সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও পেশীশক্তি পরবর্তী নির্বাচনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। পাশাপাশি সমিতির কর্মচারিগণের মাসিক বেতন হতে ৫০ টাকা এবং নতুন নিয়োগপ্রাপ্তদের নবীন বরণের নামে ৩-৫হাজার টাকা গ্রহণ করেছেন। যা গঠনতন্ত্রের নিয়ম বহির্ভূত। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ক্ষমতা হস্তান্তর ও অবৈধ্যভাবে অর্জিত টাকার হিসাব সদস্যদের না দিলে মামলার আশ্রয় নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে সমিতির সভাপতি মহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আইনি নোটিশ শুধুমাত্র সাধারণ সম্পাদককে দেয়া হয়েছে। তবে নির্বাচনের সব প্রক্রিয়া করা আছে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানে ভিসি নেই। ভারপ্রাপ্ত ভিসি বিষয়টি আমলে নিচ্ছেন না। বিধায় নির্বাচন দিতে দেরি হচ্ছে’।
আইনি নোটিশপ্রাপ্ত সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, “সংগঠন কারো ব্যক্তিগত সম্পদ নয়। সমিতির ১৫ জন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি রয়েছে। কমিটির সকল সদস্য নিয়েই পদক্ষেপ নেওয়ার কথা। অথচ শুধুমাত্র আমার বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ দেয়া হয়েছে। এতে বুঝা যাচ্ছে অভিযোগকারিরা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে আমাকে জড়াচ্ছে”।


প্রকাশিত: নভেম্বর ১৪, ২০২২ | সময়: ৫:৩২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ