নওগাঁয় আন্ত:জেলা চোর চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁয় আন্ত:জেলা চোর চক্রের ৫ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সম্প্রতি রানীনগর উপজেলা সদরে সুফিয়া মার্কেটের জনৈক হাসিবুল হাসানের দোকানে এক দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনায় অভিযান চালিয়ে চোর চক্রের ওই ৫ সদস্যকে গ্রেফতার এবং চুরি হওয়া মালামালসহ চুরির কাজে ব্যবহৃত একটি পিক-আপ ভ্যান ও একটি চোরাই মটরসাইকেল উদ্ধার করেছে। শুক্রবার রানীনগর থানা চত্বরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য দিয়েছেন নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান জানিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে দেয়া এক লিখিত বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে সুফিয়া মার্কেটের শো-রুম বন্ধ করে বাড়ি যান মালিক হাসিবুল হাসান। পরদিন সকালে দোকানে এসে দোকানের তালা ভাঙ্গা দেখতে পান। প্রাথমিক ভাবে অনুসন্ধান করে জানতে পারেন ঐ দোকান থেকে ৪৭টি মুল্যবান মোবাইল ফোন এবং নগদ ৪ হাজার টাকা চুরি যায়। যার মোট মূল্য ৭ লক্ষ্ ৮৮ হাজার ৭০০ টাকা। ১৯ সেপ্টেম্বর রানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়।
গ্রেফতারকৃত চোর সদস্যরা হলো মান্দা উপজেলার আবিদ্যপাড়া গ্রামের নাছির উদ্দিন প্রামানিকের ছেলে মো: সান্টু, পারশিমলা গ্রামের মো: ইউনুস আলীর পুত্র মো: সাকিবুর রহমান রনি ওরফে ময়নুল, পশ্চিম দূর্গাপুর গ্রামের মো: মকবুল হোসেনের পুত্র মো: আখতার হোসেন ওরফে আপু, আত্রাই উপজেলার চক শিমলা গ্রামের মো: মফিজ সরদারের পুত্র মামুনুর রশিদ মামুন ওরফে মন্টু এবং হাট কালুপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের পুত্র আবু বক্কর সিদ্দিক। পুলিশ তাদের নিকট থেকে চুরি যাওয়া ১৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে। সেই সাথে চুরির কাজে ব্যবহৃত একটি পিক-আপ ভ্যান, একটি চোরাই মোটরসাইকেল এবং একটি তালা কাটার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
পুলিশ বলেছে গ্রেফতারকৃতরা প্রত্যেকে ৭/৮ বার জেল খেটেছে। প্রত্যেকে কমপক্ষে শতাধিক চুরি মামলার আসামী। তাদের আদালতে পাঠিয়ে ৫দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।


প্রকাশিত: নভেম্বর ১২, ২০২২ | সময়: ৬:০০ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর