সর্বশেষ সংবাদ :

সাকিবের আউট হুপারের চোখে ‘শকিং’ গিলক্রিস্ট বলছেন ‘বিতর্কিত’

স্পোর্টস ডেস্ক: ম্যাচ শেষ হওয়ার মিনিট পাঁচেক পেরিয়েছে তখন। ধারাভাষ্যকক্ষ থেকে বের হলেন কার্ল হুপার। সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ধারাভাষ্য দিচ্ছেন এবিসি রেডিওর হয়ে। বাংলাদেশের সংবাদকর্মী হিসেবে তার সঙ্গে পরিচয় হয়েছে আগেই। ম্যাচ হারার জন্য সমবেদনা জানিয়ে তিনি নিজে থেকেই প্রসঙ্গটি তুললেন, “হোয়াট ওয়াজ দ্যাট? সাকিবের এলবিডব্লিউ সিদ্ধান্তটি কী ছিল!”
অ্যাডিলেইড ওভালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে সাকিবের আউট নিয়ে এমন প্রশ্ন, বিস্ময়, সংশয় আরও অনেকেরই। আম্পায়ারদের ভুল হতেই পারে। হরহামেশা কত ভুলই তো দেখা যায়। তবে টিভি আম্পায়ারের এমন ভুল বিরল বটে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ১০২ টেস্ট ও ২২৭ ওয়ানডে খেলা অলরাউন্ডার হুপার যেমন বলে গেলেন, “শকিং।”
হুপারের পাশের কক্ষেই টুর্নামেন্টের অফিসিয়াল ব্রডকাস্টারের হয়ে ধারাভাষ্য দিচ্ছিলেন অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। ম্যাচ শেষে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনিও জানালেন এই আউট নিয়ে মতামত। যদিও তার মন্তব্য কিছুটা সাবধানী। তবে যা বোঝাতে চাইলেন, তা ফুটে উঠল যথেষ্টই। “এটা এটা বিতর্কিত বটে। সব ধরনের প্রযুক্তি ও রিপ্লে নিয়েও আসলে বলা এতটা কঠিন। তবে আল্ট্রা এজ দেখে মনে হয়েছে, বল যখন ব্যাটের পাশ দিয়ে গিয়েছে, একটা শব্দ হয়েছে। সে তো সঙ্গে সঙ্গেই রিভিউ নিয়েছে, তাই না?”
“আমি আসলে জানি নাৃ যা দেখেছি, সেটিই কেবল বলতে পারি। তাকে হতাশ ও বিরক্ত মনে হয়েছে। তবে তৃতীয় আম্পায়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, আমি নিশ্চিত, এটা নিয়ে অনেক আলোচনা হবে। খেলার ধরনই এরকম।” আরেক ধারাভাষ্যকার ও সাবেক ক্রিকেটার ইয়ান স্মিথের মতামতও জানা গেল। ম্যাচ শেষে প্রেসবক্স থেকে লিফটে ওঠার আগে নিউ জিল্যান্ডের সাবেক এই কিপার ব্যাটসম্যান প্রশ্ন তুললেন টিভি আম্পায়ারের প্রক্রিয়াটা নিয়ে।
“জানি না কী হলো কোন প্রক্রিয়া অনুসরণ করে এটি হলো। তবে যে প্রক্রিয়াই অনুসরণ করা হোক না কেন, এর একটি ব্যাখ্যা থাকা উচিত।” অ্যাডিলেইড ওভালে রোববার ম্যাচে একাদশ ওভারে ওই ঘটনা ঘটে। লেগ স্পিনার শাদাব খানের ঝুলিয়ে দেওয়া বল ফ্লিক করতে গিয়ে ঠিকমতো খেলতে পারেননি সাকিব। বোলারের জোরাল আবেদনে অনেক ভেবে আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার। সাকিব রিভিউ নেন দ্রুতই।
রিভিউয়ে প্রথম রিপ্লেতেই আল্ট্রা এজ-এ ধরা পড়ে, বল লেগেছে ব্যাটে। সাকিব আবার ক্রিজে গিয়ে প্রায় স্টান্স নিয়ে ফেলেন। পাকিস্তানি ফিল্ডাররাও যার যার পজিশনে যেতে শুরু করেন। কিন্তু টিভি আম্পায়ার জিম্বাবুয়ের ল্যাংটন রুজেরের মতে, আল্ট্রা এজ-এ যা ফুটে উঠেছে, ওটা আসলে পিচে সাকিবের ব্যাটের আঘাতের চিহ্ন।
পরের বাকি প্রক্রিয়াগুলো অনুসরণ করে আউটের সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন টিভি আম্পায়ার। সাকিব তাবে বিস্মিত প্রতিক্রিয়া দেখান। মাঠ ছাড়তে সময় নেন অনেকটা। টিভি রিপ্লেতে একটি অ্যাঙ্গেল থেকে পরিষ্কার দেখা যায়, সাকিবের ব্যাট আর পিচের মধ্যে ব্যবধান ছিল যথেষ্টই। বল তার ব্যাটেই লেগেছিল।


প্রকাশিত: নভেম্বর ৭, ২০২২ | সময়: ৫:৫৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ