সর্বশেষ সংবাদ :

বড়াইগ্রামে দুই যুগ পরে দখল মুক্ত সরকারি কোয়াটার 

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধিঃ

নাটোরের বড়াইগ্রামে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ব্লক সুপারভাইজার (বিএস) কোয়াটার বেদখল হয়ে যাওয়ার দুই যুগ পরে দখলমুক্ত হলো। বুধবার দুপুরে বড়াইগ্রাম পৌর মেয়র মাজেদুল বারী নয়নের সহায়তায় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন সুলতানা ওই কোয়াটার দখল মুক্ত করেন।

 

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বড়াইগ্রাম পৌরসভার ইসলামপুর (কালিবাড়ি) বাজারে বড়াইগ্রাম মৌজার ২০৫৮ ও ২০৫৯ দাগের ১০ শতাংশ জমিতে বিএস কোয়াটারটি দুই যুগ ধরে নিজেদের দোকান নির্মাণের মাধ্যমে দখল করে রেখে ছিলেন স্থানীয় মোস্তফা, এনামুল, ওয়াসি, অপুর্ব নামের কয়েকজন প্রভাশীলী ব্যাক্তি।

স্থানীয় বাসিন্দা মালেকা বেগম বলেন, আমরা বহুদিন যাবত জেনে আসছি এটি কৃষি অফিসের জমি। কিš‘ সেই জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করে ভারা দেওয়া হয়েছে।

অভিযুক্ত মোস্তফা কামাল বলেন, কৃষি অফিসের কোন কাজ হচ্ছিল না তাই ফাঁকা জায়গায় ঘর তুলে ছিলাম। এটা দখল বলা ঠিক হবে না। বড়াইগ্রাম পৌর মেয়র মাজেদুল বারী নয়ন বলেন, এটি কৃষি সম্পসারন অধিদপ্তরের জমি। আমি জানার পরে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে দখল মুক্ত করতে সার্বিক সহযোগীতা করেছি।

 

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন সুলতানা বলেন, স্থানীয় বিএসরা এখানে কর্মরত থাকায় তারা কোয়ার্টারে না থেকে নিজ নিজ বাড়িতেই থাকেন। এই সুযোগে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ওই কোয়াটারের বাহিরের জমি গুলো দখল করে ঘর নির্মাণ করে। এতে কোয়াটারের চলাচলের পথ বন্ধ হয়ে যায়। বিষয়টি নিজে এবং ইউএনও মাধ্যম একাধিকবার নোটিশ করার পরেও তারা দখল ছাড়ছিলেন না। অবশেষে মেয়রের সহযোগিতায় তা দখল মুক্ত হলো। একই সাথে ওই জমির চার পাশে খুটি গেড়ে বেড়া দেওয়া হয়েছে। এখন এটা সংস্কার করে নিয়মিত ভাবে স্থানীয় কৃষকদের সেবা দেওয়া হবে বলেও জানান কৃষি অফিসার শারমিন।

 

 

 

সানশাইন/টিএ


প্রকাশিত: নভেম্বর ২, ২০২২ | সময়: ৯:০৭ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine

আরও খবর