সর্বশেষ সংবাদ :

শিবগঞ্জে কথা কাটাকাটির সূত্র ধরে মারামারি, হামলা-ভাঙচুর

স্টাফ রিপোর্টার, শিবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার শাহবাজপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলা, ভাংচুর ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার সোনামসজিদ স্থলবন্দর ১ নাম্বার ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।
মামলার বাদী আব্দুল জলিল জানান, বালিয়াদিঘী মধ্যেবাজারে সোনামসজিদ স্থলবন্দর যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক জেমের সাথে কাথাকাটাকাটি হয়। কথাকটাকাটির এক পর্যায়ে আমাকে মারধর শুরু করলে, আমি জীবন বাঁচানোর তাগিদে সেখান থেকে দৌড়ে পালিয়ে যাই।
পরবর্তীতে তারা আমাকে না পেয়ে, আসামী জেম, রয়েল, রুবেল, সজিব হ্যাসুয়া, কাতা, কুড়াল নিয়ে আমার বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করে আমার ঘরের সকল আসবাবপত্র টিভি, ফ্রিজ, ফ্যান সোকেস ভেঙ্গে চুরমার করে দেয় এ সময় তারা ৮৫ হাজার টাকাও তারা নিয়ে চলে যায় এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে স্থান ত্যাগ করে। এ ঘটনায় তিনি শিবগঞ্জ থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছেন বলে জানান।
অপরদিকে মামলার আসামী ও অপর মামলার বাদী জেম বলেন, আমি সোনামসজিদ স্থলবন্দর যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক হওয়ায়, সোনামসজিদ মধ্যেবাজার যুবলীগ অফিসে বসে ছিলাম এমতাবস্থায় যুবলীগ অফিসের সামনে একটু দুরে গিয়ে প্রসাব করার সময় আসামী আব্দুল জলিল,মামুন মৌলভী সহ অরও অজ্ঞাতনামা ৩ থেকে ৪ জন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমাকে এসে হিন্দুর বাচ্চা গালাগালি করতে থাকে।
গালিগালাজের কারণ জানতে চাইলে আব্দুল জলিল বলেন, মুইতা পানি লিসনা তো তোকে হিন্দু কহবো না তো কি কহবো। এ সময় পাল্টা গালি দিলে আব্দুল জলিল, মামুন সহ তাদের সঙ্গে থাকা লাঠিসোটা নিয়েআমাকে মারধর শুরু করে এবং আব্দুল জলিল একটি ইট দিয়ে আমার মাথায় আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। এ ঘটনায় তিনিও একই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
পাল্টাপাল্টি অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে, শিবগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ চৌধুরী জুবায়ের আহমেদ বলেন, গত রাতে বালিয়াদিঘি গ্রামে দুই পক্ষ অভিযোগ দিয়েছে, তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২২ | সময়: ৫:২৩ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ