নাটোরে রেল কর্মচারীদের ধর্মঘট, বন্ধ থাকবে রেল ক্রসিং

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর: চাকুরী স্থায়ী করণ ও বেতন বৃদ্ধির দাবীতে নাটোরে রেলের ৩য় শ্রেনীর অস্থায়ী (টিএলআর) কর্মচারীরা কর্মবিরতি পালন করছে। রোববার সকাল ৬টা থেকে নাটোর স্টেশনে কর্মরত রেলের ৩য় শ্রেনীর অস্থায়ী (টিএলআর) কর্মচারীরা তাদের অস্থায়ী পদ থেকে স্থায়ীকরন এবং নিয়োগবিধি ২০২০ সংশোধন করে পুর্বের ন্যায় ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারীদের ৮ম শ্রেনী পাশ রাখা সহ ৬ দফা দাবিতে এই কর্মবিরতি শুরু করেছে।
রোববার সকালে কর্মবিরতি শুরু করার পর রাজশাহী থেকে চিলাহাটিগামী তিতুমির এক্সপ্রেস ট্রেন নাটোর স্টেশনে আটকা পড়ে। পরে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে প্রায় দেড় ঘন্টা পর ট্রেনটি গন্তব্যের উদ্দেশ্যে নাটোর স্টেশন ছেড়ে যায়। এসময় ট্রেনের যাত্রিদের অসহনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। বর্তমানে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
এ ব্যাপারে নাটোর স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাষ্টার কামরুন নাহার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অস্থায়ী (টিএলআর) কর্মচারীরা রোববার সকাল ৬টা থেকে ধর্মঘট শুরু করায় ট্রেনের সিগনাল দেয়া সম্ভব হয়নি। এসময় তিতুমির ট্রেনটি আউটার সিগনালে পড়ে ছিল। পরে সিগনাল ছাড়াই (ওপিটি) ট্রেনটি নাটোর স্টেশন প্লাটফরমে ৯ টা ১৮ মিনিটে প্রবেশ করানো হয় এবং চার মিনিট বিরতি দিয়ে ৯টা ২২ মিনিটে ট্রেনটি গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। ট্রেনটি নাটোর স্টেশনে প্রবেশের নির্ধারিত সময় ছিল সকাল ৭ টা ৪৭ মিনিটের সময়। ধর্মঘটি শ্রমিকদের কর্মসুচী পালনের কারনে চিলাহাটিগামী তিতুমির এক্সপ্রেস ট্রেনটি নির্ধারিত সময়ের প্রায় দেড় ঘন্টা আউটার সিগনালে আটকা ছিল। বর্তমানে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে একজন স্থায়ী কর্মচারী দিয়ে কাজ করাতে হচ্ছে। ফলে নাটোর স্টেশনে কোন ক্রসিং হবেনা। স্টেশন মাস্টার অশোক চক্রবর্তী জানান, অস্থায়ী কর্মচারীরা সবাই ঢাকায় অবস্থান করায় তারা কর্মস্থলে না ফেরা পর্যন্ত রেল ক্রসিং বন্ধ রেখে ট্রেন চলাচল করাতে হবে ।


প্রকাশিত: অক্টোবর ১৭, ২০২২ | সময়: ৬:৫৪ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ