সর্বশেষ সংবাদ :

চালকের গলায় ছুরিকাঘাত করে বাঘায় ভ্যান ছিনতাইয়ের চেষ্টা, আটক ২

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় দু’জন ব্যক্তি যাত্রী সেজে ইঞ্জিন চালিত ভ্যান সিনতাই উদ্দেশ্যে চালকের গলাই ছুরিকাঘাত করেছে। এ ঘটনায় অল্পের জন্য প্রানে বেঁচে গেছে ভ্যান চালক সাজদার আলী। শনিবার দিবাগত রাতে বাঘার হাবাসপুর এলাকার একটি ফাঁকা রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ মিলে দুই সিনতাইকারীকে আটক করতে সক্ষম হন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে,বাঘার হেলালপুর গ্রামের মোস্তফার ছেলে ভ্যান চালক সাজদার রহমান (৪৫) শনিবার রাত ৮ টার সময় নিজ বাড়ি ফিরছিলো। এ সময় দু’জন ব্যাক্তি যাত্রী সেজে সাজদার রহমানের ভ্যানে যোগে হাবাসপুরের শেষ প্রান্ত চাঁদগড়া এলাকায় যেতে বলে। এতে রাজি হয় ভ্যান চালক। তিনি ঐ দুই যাত্রীকে নিয়ে রওনা হলে প্রতিমধ্যে ফাঁকা রাস্তায় ভ্যান চালকের গলা ও ডান হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে ভ্যান সিনতাই এর চেষ্টা চালায় তারা। তখন ভ্যান চালক সাজদার আলী চিৎকার শুরু করলে সামনের দিক থেকে অপর একটি ভ্যান-সহ তিনজন যাত্রী এবং স্থানীয় লোকজন মিলে একজন সিনতাইকারীকে আটক করে। এরপর লোকজন পুলিশকে খবর দিলে আটক সিনতাইকারির স্বীকারুক্তি পেয়ে তাকে সহ-অপর সিনজাইকারীকে বড়বড়িয়া এলাকা থেকে আটক করে বাঘা থানা পুলিশ। এরা হলো হলিদাগাছী আবাসনের (গুচ্ছগ্রাম) আতাউর রহমানের ছেলে সোহেল রানা(২৩) ও বড়বড়িয়া গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে হেলার সরকার (২৫)।
বাঘা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক নুর সাবা কাশফি জানান, স্থানীয় লোকজন ভ্যান চালক সাজদার আলীকে জরুরী বিভাগে নিয়ে এলে তার গলায় ৫ টি এবং ডান হাতে তিনটি সেলাই দেয়া হয়। বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)সাজ্জাদ হোসেন জানান, খবর শোনা মাত্র ঘটনাস্থল এবং স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পুলিশ ফোর্স পাঠিয়ে প্রথমে জনতার সহায়তায় একজন, এরপর আমাদের বিশেষ অভিযানে চাকু সহ অপর আরেকজন কেও আটক করা হয়। আটককৃতদের রবিবার সকালে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।


প্রকাশিত: অক্টোবর ১৭, ২০২২ | সময়: ৬:৫৩ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ