আদমদীঘিতে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, অতঃপর গ্রেপ্তার

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘিতে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১২) ধর্ষণের অভিযোগে নয়ন চন্দ্র দাস (৩৫) নামে এক ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার নয়ন চন্দ্র দাস উপজেলা সদর ইউনিয়নের তালশন গ্রামের অনিল চন্দ্র দাসের ছেলে।

জানা যায়, গত বুধবার সকালে অন্যের ফসলি জমিতে স্প্রে করতে যান ভুক্তভোগীর বাবা। কাজের শেষে বাড়িতে ফিরে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়েকে না দেখতে পেয়ে গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় খুঁজতে শুরু করেন তিনি। একপর্যায় দুপুরে তিনি দেখতে পান একটি পরিত্যক্ত চাতালের বারান্দায় তার প্রতিবন্ধী মেয়েকে জোরপূর্বক
ধর্ষণ করছে নয়ন চন্দ্র দাস। এরপর নয়ন চন্দ্র দাস সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে ধরে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে নয়ন চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম রেজা জানান, ধর্ষণের অভিযোগে নয়ন চন্দ্র দাসকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।


প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ | সময়: ৫:১৩ অপরাহ্ণ | সানশাইন

আরও খবর