১২ বছরে বিদেশি ঋণ পরিশোধ একলাখ ২১ হাজার কোটি টাকা

সানশাইন ডেস্ক: সরকার গত ১২ বছরে প্রায় এক লাখ ২১ হাজার কোটি টাকা সুদসহ বৈদেশিক ঋণ পরিশোধ করেছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বুধবার জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে সরকারি দলের মামুনুর রশীদ কিরণের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ তথ্য জানান। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।
এই সংসদ সদস্যের প্রশ্নের জবাবে আ হ ম মুস্তফা কামাল জানান, ২০০৯-২০১০ থেকে ২০২০-২১ অর্থবছর পর্যন্ত সরকার বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী দেশ ও সংস্থাকে একলাখ ২০ হাজার ৯৮২ কোটি ৫৭ লাখ টাকা ঋণ পরিশোধ করেছে। এরমধ্যে আসল বাবদ ৯৪ হাজার ৬৮০ কোটি ৯৫ লাখ টাকা এবং সুদ বাবদ ২৬ হাজার ৩০১ কোটি ৬২ লাখ টাকা।
কাজিম উদ্দিন আহম্মেদের প্রশ্নের জবাবে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার জানান, চারটি মোবাইল অপারেটরের গ্রাহক ১৮ কোটি ৪০ লাখ। এসব অপারেটরের মোট সিম সংখ্যা ৩০ কোটি ৯৯ লাখ। মন্ত্রীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গ্রামীণ ফোনের গ্রাহক সংখ্যা ৮ কোটি ৪০ লাখ, সিম সংখ্যা ১১ কোটি ১৪ লাখ, রবি’র গ্রাহক ৫ কোটি ৪৮ লাখ, সিম সংখ্যা ১০ কোটি ২৬ লাখ, বাংলা লিংকের গ্রাহক ৩ কোটি ৮৫ লাখ, সিম সংখ্যা ৮ কোটি ২৬ লাখ এবং রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিটকের গ্রাহক ৬৭ লাখ ১০ হাজার, সিম সংখ্যা এক কোটি ৩৩ লাখ।
দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘নগদ অর্থ এক গ্রাহকের কাছ থেকে অন্য গ্রাহককে পৌঁছে দেওয়া কুরিয়ার সার্ভিস প্রতিষ্ঠানগুলোর এখতিয়ারভুক্ত নয়। তবে অনলাইন কেনাকাটার ক্ষেত্রে কুরিয়ার কোম্পানি পণ্য ডেলিভারি করে, তার অর্থ সংগ্রহ করে পণ্য বা সেবা প্রদানকারীর কাছে পৌঁছে দেওয়ার বিষয়টি বিশ্বব্যাপী প্রচলিত রয়েছে। এ ধরনের সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি গাইডলাইন রয়েছে।’
এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে অনিষ্পন্ন অডিট আপত্তির সংখ্যা তিন কোটি ৩০ লাখ ৬৫২টি। মন্ত্রীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি অডিট আপত্তি রয়েছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের। এ বিভাগের অডিট আপত্তির সংখ্যা ৪৮ হাজার ২৫৮টি। সবচেয়ে কম অডিট আপত্তি রয়েছে আইন কমিশনের, ৯টি।


প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১, ২০২২ | সময়: ৬:০৫ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর