বাঘায় স্ত্রীর প্রতি ক্ষুব্ধ স্বামীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় স্ত্রীর উপর অভিমান করে স্বামী বাদশা আলী (৩৬) আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার সকাল ৯ টার দিকে নিজ শয়ন ঘর থেকে পুলিশ তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে মর্মে প্রেরণ করেছেন। বাদশা আলী বাঘা পৌর সভার বানিয়াপাড়া গ্রামের উজির আলী প্রামানিকের ছেলে বলে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বাদশা আলীর অভাব অনটনের সংসার। সে একজন প্রতিবন্ধী। তার ঘরে তিনটি সন্তান রয়েছে। সংসার চালাতে গিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রায় ঝগড়া-বিবাদ হতো। ঘটনার এক পর্যায়ে ছেলে মেয়েদের বাড়িতে রেখে তারা উভয় ঢাকায় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরিতে যান। কয়েক দিন আগে তারা ছেলে মেয়েদের দেখার উদ্দেশ্যে ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসেন।
ছুটি শেষে সোমবার স্বামী-স্ত্রী উভয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। রাস্তায় যেতে যেতে তাদের মাঝে কথাকাটা কাটি শুরু হয়। রাগ করে স্ত্রীকে রেখে বাদশা নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন। এরপর বাড়িতে এসে ছেলে মেয়েদের সাথে রাতের খাবার খেয়ে আলাদা ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে পরিবারের লোকজন দেখেন, সে ঘরের তীরের সাথে গামজা দিয়ে ঝুলিয়ে আছে। পরে পুলিশকে খবর দিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়।
এ বিষয়ে বাঘা পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বানিয়াপাড়া গ্রামের কাউন্সিলর আকরাম হোসেন বলেন, বাদশা আত্মহত্যা করেছে খবর পেয়ে আমি পুলিশকে বিষয়টি অবগত করি। এরপর পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে একটি ইউডি মামলা রেকড করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোট পেলে তার মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।


প্রকাশিত: আগস্ট ৩১, ২০২২ | সময়: ৬:১৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ