চারঘাটে মানসিক প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের শিকার, একজনকে পুলিশে সোপর্দ

স্টাফ রিপোর্টার, চারঘাট : রাজশাহীর চারঘাটে মানসিক প্রতিবন্ধী (৩২) এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুর রশিদ (৪৫) নামের একজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন স্থানীয়রা। আটক আব্দুর রশিদ উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের ছেলে।
বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আটটার দিকে উপজেলার শলুয়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে অভিযুক্ত রশিদকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ বিষয়ে ধর্ষনের শিকার ওই নারীর বোন বাদী হয়ে চারঘাট থানায় একটি মামলা করেছেন।
স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের চামটা গ্রামে মানসিক প্রতিবন্ধী (৩২) এক নারীকে একা পেয়ে আব্দুর রশিদ কৌশলে একটি আম বাগানের ঝোপের মধ্যে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় ওই নারী চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে। এমন সময় হাতে নাতে অভিযুক্ত রশিদকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে ভিকটিমসহ অভিযুক্তকে শলুয়া ইউনিয়র পরিষদে আটকে রাখা হয়। পরে সংবাদ পেয়ে রাত আটটার দিকে চারঘাট থানা পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার এবং অভিযুক্ত রশিদকে আটক করে। এ বিষয়ে ওই রাতেই ধর্ষনের শিকার ওই নারীর বোন বাদী হয়ে অভিযুক্তকে আসামী করে একটি মামলা করেন।
চারঘাট থানার ওসি আব্দুল লতিফ বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে রাতেই দ্রুত ইউনিয়ন পরিষদ থেকে অভিযুক্তকে আটক এবং ভিকটিম উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামীকের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।


প্রকাশিত: আগস্ট ২০, ২০২২ | সময়: ৬:০৩ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ