সিংড়ায় বিদ্যুৎ থাকে না তিন থেকে পাঁচ ঘণ্টা

সিংড়া প্রতিনিধি: সরকারের ব্যয় সাশ্রয়ী পরিকল্পনার অংশ হিসেবে দেশজুড়ে সূচি ধরে ১ ঘণ্টার লোডশেডিংয়ের কথা থাকলেও নাটোরের সিংড়া উপজেলার গ্রামাঞ্চল এবং পৌর এলাকায় গড়ে তিন থেকে ৫ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকছে না। অপরদিকে অনাবৃষ্টির কারণে আমন ধান চাষ নিয়ে চিন্তিত কৃষকরা। এতে উৎপাদন ব্যহত হতে পারে। তদারকির জন্য বিদ্যুৎ বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন নাটোর জেলা প্রশাসক।
অপরদিকে অনাবৃষ্টির কারণে আমন ধান চাষ নিয়ে চিন্তিত কৃষকরা। তবে সিংড়া এলাকায় গভীর ও অগভীর নলকুপ দিয়ে পানি সেচ দেওয়া হচ্ছে। এদিকে বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে ক্ষতির মুখে বিদ্যুৎ চালিত মেশিনগুলো নষ্ট হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের দাবি আমন ধান বৃষ্টি নির্ভর ফসল হওয়ায় পানি সেচের প্রয়োজন পড়বে না। এছাড়া নিচু জমিতে এসব ধান আবাদ করা হয়। ফলে সেচ যন্ত্র চালানোর জন্য জ্বালানী তেল বা বিদ্যুতের প্রয়োজন হচ্ছে না।
নাটোর কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে দায়িত্ব পালনরত জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার ডা. ইয়াছিন আলী বলেন, জেলায় বর্তমানে বৃষ্টি নির্ভর ফসল আমন ধান চাষ শুরু হয়েছে। নিচু এলাকা হওয়ায় বাড়তি পানি সেচের প্রয়োজন হচ্ছে না। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অফিসার সেলিম রেজা জানান, চলতি আমন মৌসুমে আমন ধানের চাষের লক্ষামাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, ২৩ হাজার ৪৯০ হেক্টর জমিতে। এরমধ্যে রোপন করা হয়েছে, ৬ হাজার ৩১০ হেক্টর। তবে বৃষ্টি না হলে ও লোডশেডিং অব্যহত চাপ বাড়তে পারে। নাটোর পল্লীবিদ্যুত সমিতির আওতায় ১১০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে।
নাটোর পল্লীবিদ্যুত সমিতি-২এর জেনারেল ম্যানেজার শাহাদাৎ হোসেন বলেন, সিংড়া এলাকার জন্য ২১ মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্রয়োজন। তবে ১০-১২ মেগাওয়াট পাওয়া যাচ্ছে। ফলে ৩ থেকে ৫ ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। অ
পরদিকে ইজিবাইকে বিদ্যুৎ ব্যবহারে বিদ্যুতের ওপর চাপ রয়েই গেছে বলে সংশ্লিষ্ট একটি সুত্র দাবি করছেন। সরকারের ব্যয় সাশ্রয়ী পরিকল্পনায় স্থানীয় প্রশাসন ও বিদ্যুত বিভাগের নির্দেশ ও পরামর্শে ইজিবাইকে সুচি ধরেই বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে। সচেতন মহলের দাবী রাতে ও দিনভর ইজিবাইকে চার্জ দেওয়া হচ্ছে।
নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, বিষয়টি নিয়মিত তদারকির জন্য বিদ্যুত বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রশাসনের পক্ষ থেকেও মোবাইল টিম মাঠে কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানগুলোতে লোডের অতিরিক্ত বিদ্যুত সরবরাহ করা হচ্ছে কিনা, সে বিষয়টিও দেখতে বিদ্যুত বিভাগকে বলা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।


প্রকাশিত: আগস্ট ২, ২০২২ | সময়: ৫:৫৪ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর