সর্বশেষ সংবাদ :

রাবি ছাত্রীর শ্লীলতাহানি ও মারধর পাল্টা হামলায় আহত ৩

রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক ছাত্রের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মমতাজউদ্দিন একাডেমিক ভবনের সামনে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর তিন বন্ধু ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়েছেন।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী নাম নাজমা খাতুন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। অন্যদিকে অভিযুক্ত রাকিব আল হাসান বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং এ্যান্ড ইন্সুরেন্স বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর আহত তিনজন বন্ধু হলেন নয়ন আলী, শুভ ঘোষ এবং মো. নাঈম। তারা রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নাজমা খাতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
ভুক্তভোগীর অভিযোগ পত্র সূত্রে জানা যায়, একই জেলায় বাড়ি হওয়ার ফলে রাকিব আল হাসানের সাথে আগে থেকেই পরিচয় তার। রাকিব তাকে মাঝে মাঝেই বিরক্ত করতো। মঙ্গলবার সে ও তার বান্ধবী বাইরে খেয়ে হলে ফেরার পথে রাত সাড়ে দশটার দিকে মমতাজউদ্দিন কলা ভবনের সামনে রাকিবের সাথে তার দেখা হয় এবং রাকিব তাকে কথা বলার জন্য আটকায়। এক পর্যায়ে সে জোর করে চলে আসতে চাইলে রাকিব পিছন থেকে তাকে টেনে ধরে এবং এর ফলে তার জামা ছিড়ে যায়। পরে রাকিব তাকে থাপ্পড় ও মাড়ে মারে।
এরপর শ্লীলতাহানি করার খবর শুনে নাজমার বন্ধুরা ঘটনাস্থলে গেলে রাকিবের বন্ধুরা তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় ছাত্র উপদেষ্টা ও মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে তাদের থামানোর চেষ্টা করেন।
এবিষয়ে নাজমার বন্ধুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর আরেকটি লিখিত অভিযোগ পত্র দিয়েছেন। তাতে বলা হয়, নাজমাকে শ্লীলতাহানির খবর শুনে তারা ঘটনাস্থলে যান। এসময় তাদের হুমকি দেওয়া হলে বিষয়টা তারা ছাত্র উপদেষ্টাকে জানান। এরপরে ছাত্র উপদেষ্টা এবং মতিহার থানার ওসি সেখানে উপস্থিত হয়ে ঘটনা শুনছিলেন। এক পর্যায়ে দশ জনের মত লোক এসে তাদের উপর অতর্কিত হামলা করে। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তাদের তিনজন আহত হয়। এসময় ছাত্র উপদেষ্টা এবং ওসি বাধা দেয়ার চেষ্টা করা সত্ত্বেও আক্রমনের ঘটনাটি ঘটে।
অভিযুক্ত রাকিব আল হাসান বলেন, নাজমা আমার পূর্ব পরিচিত। তার সঙ্গে আমার এক বছরের সম্পর্ক ছিলো। গত ৫ মাস যাবত আমাদের কথা হয়না। রাতে আমার দুইটা পরীক্ষার্থী আসার কথা ছিলো। তাই মমতাজউদ্দিন একাডেমিক ভবনের সামনের একটি তাবুতে আমার এক বান্ধবীসহ বসে অপেক্ষা করছিলাম। এমন সময় নাজমা তার এক বান্ধবীসহ আমার সামনে এসে আমার বান্ধবীর পরিচয় জানতে চাইলে তার সঙ্গে আমার বাকবিতন্ডা হয়। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে নাজমা আমাকে থাপ্পড় মারে। তখন, আমিও নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে তাকে একটা থাপ্পড় মারি।
রাকিব বলেন, এসময় রাস্তার বিপরীত দিক থেকে নাজমার চার-পাঁচজন বন্ধু আসে। তারমধ্যে কয়েকজন আমাকে চড়-থাপ্পড় এবং কিল-ঘুষি মারে। এসময় আশেপাশে থাকা কয়েকজন আমাদের সরিয়ে দেন। পরে নাজমারা ছাত্র উপদেষ্টা স্যারকে কল দিলে তাৎক্ষণিক তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এরপর আশেপাশে থাকা আমার বন্ধুরা স্যারের সঙ্গে কথা বলতে আসলে নাজমার বন্ধুরা আমি ও আমার এক বন্ধুর উপর আবার আক্রমণ করে। এসময় ছাত্র উপদেষ্টা স্যার আক্রমণটা থামিয়ে আমাকে ও আমার আরেক বন্ধুকে উদ্ধার করেন। এরপরে বিপরীত পক্ষকে সঙ্গে নিয়ে স্যার নিজের দফতরে চলে যান। আর আমার বন্ধুরাও হলে ফিরে যায়। ছাত্রলীগের কেউ এর সঙ্গে জড়িত না।
যদিও প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন রাবি ছাত্রলীগের নবাব আব্দুল লতিফ হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন ও মতিহার হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি পারভেজ হোসেনের নেতৃত্বে ভুক্তভোগীর বন্ধুদের ওপর এই হামলা করা হয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে নবাব আব্দুল লতিফ হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন বলেন, আমার বন্ধুকে মারধরের করা হচ্ছে বিষয়টি জানতে পেরে আমরা আমাদের বিভাগের অনেকে ঘটনাস্থলে আসি। আমরা সেখানে আসার পর কাউকে কোনো প্রকার মারধর করিনি। এই বিষয়টি আমরা আমাদের বিভাগের শিক্ষকদের মৌখিকভাবে জানিয়েছি এবং লিখিত অভিযোগও দিব।
এদিকে রাবি ছাত্রলীগের দুজনের নেতৃত্বেই হামলা হয়েছিলো জানিয়ে ছাত্র উপদেষ্টা এম. তারেক নূর বলেন, এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও মারধরের খবর শুনে মতিহার থানার ওসিসহ আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। পরে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী নাজমা খাতুনকে শান্ত করে তার হলে পাঠিয়ে দিই। এরপর অন্যান্য ছেলেরা যারা ছিলো, তাদের নিয়ে আমার দফতরে দিকে রওনা দিই। এসময় নবাব আব্দুল লতিফ হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন ও মতিহার হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি পারভেজ হোসেনের নেতৃত্বে নাজমার বন্ধুদের উপর অতর্কিত হামলা করা হয়। তাৎক্ষণিক বিষয়টি আমি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি এবং আজ প্রশাসনের সঙ্গে ভুক্তভোগীদের কথা বলার জন্য বলেছি। বিষয়টি নিয়ে আমরা যথাযথ এবং কঠোর পদক্ষেপ নিবো।


প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০২২ | সময়: ৫:৫৫ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ