হোটেলে সিট দেওয়ার কথা বলে রাবি শিক্ষার্থীর সর্বস্ব লুট

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে নিজ জেলা কুড়িগ্রাম থেকে আসবে কয়েকজন ভর্তিচ্ছু স্বজন ও তাদের অভিভাবক। তাদের থাকার সিট খুঁজতে ছুটে যান শহরের বিভিন্ন হোটেলে। কয়েকটি হোটেলে খোঁজার পর যখন সিট পেলেন না, তখন কয়েকজন লোক এসে বলে আপনি কি হোটেলে সিট খুঁজছেন? আমাদের হোটেল আছে, সেখানে চলেন সিট পেয়ে যাবেন।

 

আবাসিক হোটেলে সিট দেওয়ার কথা বলে এভাবে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী দুলাল চন্দ্রকে। পরে একটি গলিতে নিয়ে মারধর করে মোবাইল-টাকাসহ সর্বস্ব লুট করে নেওয়া হয়। শুক্রবার (২২ জুলাই) রাতে রাজশাহীর লক্ষীপুরের আলীগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

সেখানে অজ্ঞান অবস্থায় এলাকাবাসীরা তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রিক্সা করে ক্যাম্পাসে পাঠিয়ে দেন। পরে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির সাবেক সভাপতি হুমায়ুন আহমেদ তাকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

 

ভুক্তভোগীর বরাত দিয়ে হুমায়ুন আহমেদ বলেন, দুলাল পরিচিত কয়েকজন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর জন্য নগরীর লক্ষীপুর মোড়ে আবাসিক হোটেলে সিট খুঁজতে যায়। সেখানে কয়েকজনের সাথে তার পরিচয় হয়। তারা তাকে সিটের ব্যবস্থা করে দেবার কথা বলে রিকশায় তুলে নেয়। পরে তারা লক্ষীপুরের নিকটে আলীগঞ্জ পশ্চিমপাড়ায় রিকশা নিয়ে যায়। সেখানে তাকে প্রচণ্ড মারধর করে তার মোবাইল ও টাকা পয়সা লুট করে নেয়। দুলাল অভিযুক্ত তিনজনের নাম বলেছে কটা, আলাল এবং হাসিব।

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সলীল সমাদ্দার বলেন, তাকে মাথার পিছনে মারা হয়েছে এবং হাতের কব্জিতে ব্লেডের আঘাত রয়েছে। মাথার পিছনে মারের আঘাত দেখে মনে হয়েছে অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ হয়েছে এবং সেই কারণে ফুলে আছে। মাথার আঘাতের কারণে সে সেন্সলেস হয়ে গেছে। ম্যাক্সিমাম ইঞ্জুরি হয়েছে মাথার ভিতর সাইডে। তার চিকিৎসা এই মুহুর্তে এখানে করা সম্ভব নয় বলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, আমি বিষয়টি জেনেছি। আগে আহত শিক্ষার্থীর চিকিৎসাটা জরুরি। তারপর কারা এমন করেছে, কি কারণে করেছে তা বের করা হবে।

সানশাইন / শামি


প্রকাশিত: জুলাই ২৩, ২০২২ | সময়: ৬:৫২ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine

আরও খবর