সুইডেন যাচ্ছে রাজশাহীর ‘গোপাল’

স্টাফ রিপোর্টার: আমের রাজ্যে গোপালভোগের রাজত্ব অনেক দিনের। সেই গোপালভোগ দেশের আম পিপাসু মানুষের স্বাদের খোরাক মেটাচ্ছে। এবার সেই গোপালভোগ যাচ্ছে সুইডেন। রাজশাহীর আমের বিদেশযাত্রা শুরু হয়েছে। প্রথম ধাপে সুইডেন যাচ্ছে ৫০০ কেজি গোপালভোগ।
শুক্রবার (২৭ মে) রাজশাহী নগরীর জিন্নাহ নগর এলাকার রাজশাহী অ্যাগ্রো ফুড প্রডিউসার সোসাইটির সভাপতি আনোয়ারুল হকের বাগান থেকে ৫০০ কেজি গোপালভোগ আম নামানো হয়েছে।
আনোয়ারুল হক জানান, শুক্রবার তার বাগান থেকে ৫০০ কেজি গোপালভোগ আম নামিয়েছেন। রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান এনজেল গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ এন হোসেন সজলের মাধ্যমে প্রথম দফায় তিনি এই আম সুইডেনে পাঠাচ্ছেন।
তিনি আরও জানান, এবার তিনি নিজের বাগানের ১ লাখ আম ব্যাগিং করেছেন। কেবল নিজের বাগান থেকেই ৩০ টন আম রপ্তানি করতে পারবেন। তারা একটি গ্রুপ দীর্ঘদিন ধরেই রাজশাহী থেকে আম রপ্তানি করে আসছেন। কিন্তু এবার অনেকেই রপ্তানিযোগ্য আম উৎপাদন করেননি। কেউ কেউ সীমিত করেছেন। তার বাগানেও পর্যাপ্ত রপ্তানিযোগ্য আম আছে।
সোসাইটি থেকে এবার ৫০ টন আম রপ্তানির লক্ষ্য ধরে রেখেছেন। ধাপে ধাপে ইউরোপীয় ইউনিয়নের আটটি দেশে রাজশাহীর আম যাবে বলেও জানান তিনি।
গত ১৩ মে থেকে গুটি আম নামানোর মধ্য দিয়ে রাজশাহীর আম-বাণিজ্য শুরু হয়েছে। জেলা প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময়সীমা অনুযায়ী, ২০ মে থেকে গোপালভোগ ও ২৫ মে থেকে লক্ষ্মণভোগ, লখনা এবং রানিপছন্দ নামছে। হিমসাগর ও ক্ষীরসাপাত নেমেছে ২৮ মে থেকে।
এ ছাড়া আগামী ৬ জুন থেকে ল্যাংড়া, ১৫ জুন থেকে আম্রপালি ও ফজলি, ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা ও বারি আম-৪, ১৫ জুলাই থেকে গৌরমতি এবং ২০ আগস্ট থেকে ইলামতি জাতের নাম।
রাজশাহী জেলা কৃষি দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, রাজশাহীতে চলতি মৌসুমে ১৮ হাজার ৫১৫ হেক্টর জমিতে আমবাগান রয়েছে। আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৭৬ টন।
সেই হিসাবে চলতি মৌসুমে রাজশাহীতে ৯০০ কোটি টাকার বেশি আম বেচাকেনা হবে বলে জানিয়েছে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোজদার হোসেন।


প্রকাশিত: মে ৩০, ২০২২ | সময়: ৫:১৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর