সাকিবকে স্রেফ ফিটনেস ঠিক রাখতে বললেন হেরাথ

স্পোর্টস ডেস্ক: বয়স পেরিয়ে গেছে ৩৫। টেস্ট ক্রিকেটে এখন তিনি অনিয়মিত। সাকিব আল হাসানের টেস্ট ক্যারিয়ারের ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তার সুর এখন প্রায়ই বেজে ওঠে দেশের ক্রিকেটে। তবে বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথের মতে, শুধু ফিটনেস ঠিক রাখতে পারলেই আরও অনেক দূর যেতে পারবেন সাকিব।
হেরাথের তত্ত্বাবধানে রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে ৩২ স্পিনারকে নিয়ে বিশেষ স্পিন বোলিং ক্যাম্প। চারদিনের ক্যাম্পের শুরুর দিনে মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি তুলে ধরলেন এই ক্যাম্পের নানা দিক। সেখানে উঠে আসে সাকিবের প্রসঙ্গও।
৬ মাস পর টেস্ট খেলতে নেমে এবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে দারুণ বোলিং করেন সাকিব। যদিও প্রস্তুতির ঘাটতি ছিল তার প্রবলভাবেই। এই সিরিজ খেলার জন্য যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে কোভিড পজিটিভ হন তিনি। তিন দিন পরই নেগেটিভ হয়ে যোগ দেন দলে। তবে অনুশীলনের সুযোগ পান মাত্র একটি সেশন। সেই সেশনে তিনি কেবল আধ ঘণ্টা ব্যাটিং অনুশীলন করেন। ৬ মাসে লাল বলের ক্রিকেটে কোনো বল না করেই নেমে যান টেস্ট খেলতে। কিন্তু প্রস্তুতির ঘাটতির কোনো প্রভাব পড়েনি পারফরম্যান্সে। চট্টগ্রাম টেস্টে ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে দুর্দান্ত বোলিং করে নেন ৪ উইকেট। মিরপুরে দলের পরাজয়ের টেস্টে নেন ৫ উইকেট।
সিরিজ শুরুর আগে ফিটনেস ট্রেনিং খুব একটা না করেই দুই টেস্টে ১০৫.১ ওভার বোলিং করেন সাকিব। তার স্কিল, সহজাত দক্ষতা ও বোলিং ফিটনেসের আরেকটি প্রমাণ সেটি। তবে পারফরম্যান্স ভালো হলেও প্রস্তুতি তো আদর্শ ছিল না। তার এই বয়সে ফিটনেস ট্রেনিং জরুরিও। সামনে তাকিয়ে সাকিবকে ফিটনেসেই জোর দিতে বললেন হেরাথ। “সে অনেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। সবসময়ই প্রত্যাশা পূরণ করে। তাকে স্রেফ নিজের ফিটনেস নিয়ে ভাবতে হবে। ফিটনেস ধরে রাখতে পারলে সে অনেক দূর যেতে পারে।”
আপাতত পরের সিরিজে সাকিবদের গন্তব্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ। উইকেট যেখানে হতে পারে পেস সহায়ক। স্পিনারদের কাজটা সেক্ষেত্রে কঠিন হবে। তবে মানসিকতা ঠিক থাকলে এখানেও সাফল্য পাওয়া সম্ভব বলে মনে করেন হেরাথ। “খেলা ওয়েস্ট ইন্ডিজ হোক বা বাংলাদেশে, মানসিকতা এরকম থাকতে হবে যে আমরা (স্পিনাররা) দায়িত্ব নেব ও ভূমিকা রাখব। দায়িত্ব নেওয়াটা শিখতে হবে। ঘাসের উইকেট হতে পারে, নিষ্প্রাণ ব্যাটিং উইকেট হতে পারে, স্পিনারদের সহায়তাও থাকতে পারে। উইকেট যেমনই হোক পরিস্থিতি ও কন্ডিশন বুঝে নিজের শক্তির জায়গা ঠিক রেখে বল করতে হবে।”
এই চ্যালেঞ্জে অবশ্য স্পিন বোলিং কোচকে পাশে পাচ্ছে না স্পিনাররা। এই সফর থেকে ছুটি নিয়েছেন হেরাথ, দলের সঙ্গে থাকবেন না দেশের কোনো স্পিন বোলিং কোচও। তবে তাতে সমস্যা হবে না বলেই ধারণা হেরাথের। “স্পিনারদের সঙ্গে খুব ভালো করে কথা বলেছি আমরা। অন্য কোচদের সঙ্গেও কথা বলেছি। আমি নিশ্চিত, অন্য কোচরা এই সিরিজে স্পিনারদের দেখভাল ভালোভাবেই করবেন।”


প্রকাশিত: মে ৩০, ২০২২ | সময়: ৫:১০ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর