সর্বশেষ সংবাদ :

পঞ্চগড়ে হঠাৎ ভিজে যাচ্ছে ঘরের মেঝে, জমছে পানিও!

সানশাইন ডেস্কঃ পঞ্চগড় শহর থেকে গ্রাম সর্বত্র বাসা বাড়িতে হঠাৎই সবার মেঝে ভিজে যাচ্ছে। জমছে পানিও। এ নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন স্থানীয়রা।

কেউ বলছেন ভূমিকম্পের আভাস এটি। কেউ বলছেন জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব। আবার কেউ বা বলছেন বাতাসের আদ্রতার কারণে এমনটি হয়ে থাকতে পারে। তবে বিষয়টির সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা দিতে পারেনি কেউ। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও শেয়ার করছেন অনেকে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ই এপ্রিল) দুপুর থেকে হঠাৎই পঞ্চগড়ের বাসা বাড়ির মেঝে ঘেমে ভিজে যেতে শুরু করে। কোথাও কোথাও ভিজে জমছে পানিও। বার বার মুছে দিলেও আবারও ভিজে উঠছে মেঝে। শুরুতে কেউ তেমন গুরুত্ব না দিলেও এক এক করে সবার ঘরের একই অবস্থার সৃষ্টি হওয়ায় বিষয়টি উঠে আসে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও।

ঘরবাড়ির এই অবস্থানে কেউ বলছেন চৈত্রে হঠাৎ অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের পর বাতাসের আদ্রতা বেড়ে যাওয়ায় এমনটি হয়েছে। আবার কেউ এই অবস্থার বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যাও তুলে ধরে ধরেছে। তারা বলছেন, গ্লাসে বরফ গলা ঠান্ডা পানি রাখলে বাইরেও বিন্দু বিন্দু জলকণা জমে। জলীয় বাষ্প ঠান্ডা গ্লাসের স্পর্শে জলকণায় রূপ নেয়। ঠিক এমনিভাবে মেঝেও ভিজে যাচ্ছে বলে দাবি তাদের। তবে আগে কখনো এমনটি না হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত স্থানীয়রা।

গত কয়েকদিন ধরে ভ্যাপসা গরম চলছে উত্তরের এই জেলায়। বৃহস্পতিবার (১৪ই এপ্রিল) জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ২৩ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
পঞ্চগড় শহরের বাসিন্দা রিফাত হোসেন বলেন, হঠাৎ করে ঘরের মেঝে ভিজে যাচ্ছে। চারপাশে সবার একই অবস্থা। বিষয়টি নিয়ে আমরা চিন্তিত। কারণ আগে এমন গরম থাকলেও কখনো এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়নি।

আবু জাফর নামে শহরের আরেক বাসিন্দা বলেন, আমারো ঘরের একই অবস্থা। হঠাৎই মেঝে ভিজে যাচ্ছে। মুছে দিলে কিছুক্ষণ পর আবারও একই অবস্থা।

রোজিনা খাতুন নামে এক গৃহিনী বলেন, আমার মেঝের এই অবস্থা দেখে আমি খুব চিন্তিত। জানিনা কেন এমন হচ্ছে। আগে কখনো একই সাথে সবার বাড়ির মেঝে ভেজার কথা শুনিনি।
বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন পঞ্চগড়ের আহ্বায়ক একেএম আনোয়ারুল খায়ের বলেন, অনেকে বলছেন বাতাসে আদ্রতা বেড়ে যাওয়ার কারণে মেঝে ভিজে যাচ্ছে কিন্তু আগেও বাতাসের আদ্রতা একই রকম থাকলেও এমনটি কখনো হয়নি।
তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ বলেন, ভ্যাপসা গরমের কারণেই এমনটি হয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি ভালো করে না দেখে সুনির্দিষ্ট করে বলা ঠিক হবে না। তবে এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই বলেও জানান তিনি।


প্রকাশিত: এপ্রিল ১৫, ২০২২ | সময়: ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ | Daily Sunshine