বরাদ্দকৃত কক্ষে ছাত্রদের তুলে দিলেন রাবির জিয়া হল প্রাধ্যক্ষ

রাবি প্রতিনিধি:
বরাদ্দকৃত কক্ষে ১৫ জন ছাত্রকে তুলে দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ জিয়াউর রহমান হল প্রাধ্যক্ষ। বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) বেলা দুইটায় হল কর্তৃপক্ষকে সঙ্গে নিয়ে বরাদ্দকৃত কক্ষে সাধারণ ছাত্রদের তুলে দেন তিনি।

এর আগে, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সিট বাণিজ্যের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে বরাদ্দকৃত সিটে অন্যজনকে অবৈধভাবে উঠিয়ে রাখার অভিযোগ উঠে। ফলে বরাদ্দকৃত সিটে অনেক শিক্ষার্থী উঠতে না পারায় এই কার্যক্রম পরিচলনা করেন তিনি।

জানতে চাইলে জিয়াউর রহমান হল প্রাধ্যক্ষ ড. সুজন সেন বলেন, ‘আমরা হল প্রশাসন একটি নিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় হলে শিক্ষার্থীদের আসন বরাদ্দ দিয়েছি। আবাসিকতা পাওয়া শিক্ষার্থীদের হলে সকল সুবিধা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। আমরা সে কারণেই শিক্ষার্থীদের বরাদ্দকৃত সিটে তুলেছি। হলে অবৈধভাবে কেউ থাকতে পারবে না। যারা এখন পর্যন্ত অবৈধভাবে অবস্থান করছে তাদের কক্ষ পরিদর্শনের মধ্যমে বৈধ শিক্ষার্থীদের আবাসন নিশ্চিত করছি। যতদিন পর্যন্ত বৈধ শিক্ষার্থীদের আবাসন নিশ্চিত করতে পারছি না, ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে হলে যাদের আবাসন নিশ্চিত করেছি, পরবর্তীতে যদি আসন সংক্রান্ত তাদের কোন সমস্যা হয় আমরা সেই বিষয়টিও নজরে রাখবো। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদেরকে এই পদক্ষেপ বাস্তবায়নে সহযোগিতা করেছে। এই অবস্থার সমাধান না হওয়া অবধি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

এদিকে প্রশাসনের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। তাছাড়া কর্তৃপক্ষের এমন পদক্ষেপে হলে পড়াশোনাসহ সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকবে বলে মনে করছেন তারা।

এবিষয়ে জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী প্রসেনজিৎ তিগ্যা বলেন, ‘অনেক শিক্ষার্থী হল কার্ড না করেই অবৈধভাবে সিটে অবস্থান করে। ফলে প্রাপ্য শিক্ষার্থীরা যেমন সুবিধাবঞ্চিত হয়, তেমনি হলের সুষ্ঠু পরিবেশেরও ব্যাঘাত ঘটে। তাই হল প্রশাসনের এই উদ্যোগের ফলে এমন অনৈতিক কর্মকান্ড রোধ করা সম্ভব এবং এটা একটা শিক্ষার্থীবান্ধব উদ্যোগ বলে মনে করছি।’

সানশাইন/ ২৪ ফেব্রূয়ারি/ এলএইচ


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২২ | সময়: ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর