সর্বশেষ সংবাদ :

চরিত্রের প্রয়োজনে যৌনপল্লীতেও যেতেন আলিয়া

 বিনোদন ডেস্ক ঢাকা অফিস: পর্দায় কোনো চরিত্রকে ফুটিয়ে তুলতে অভিনেতারা কঠোর পরিশ্রম করে নিজেদের প্রস্তুত করে তোলেন। অনেক অভিনেতাকেই কোনো চরিত্রের জন্য নাচ কিংবা মারপিট শিখতে বা ওজন বাড়াতে কমাতে দেখা যায়।  তবে, বলিউডে অভিনেত্রী আলিয়া ভাট সেই তালিকায় নতুন কিছুই এবার যোগ করেছেন। চরিত্রের প্রয়োজনে আলিয়া যৌনপল্লীতে যেতেন বলে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজেই জানিয়েছেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারত ও এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তম যৌনপল্লী মুম্বাইয়ের কামাঠিপুরা। আর সেই কামাঠিপুরাতেই নাকি নিয়মিত যেতেন আলিয়া। এ জন্য দায়ী আলিয়ার মুক্তি প্রত্যাশী চলচ্চিত্র “গাঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ি”। ষাটের দশকে যৌনকর্মী থেকে সমাজের অন্যতম আলোচিত ব্যক্তি হয়ে ওঠা কামাঠিপুরার কর্ত্রী গাঙ্গুবাইয়ের জীবনকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে চলচ্চিত্রের গল্প। এই গাঙ্গুবাইয়ের চরিত্রেই দেখা যাবে আলিয়াকে। আর সেজন্যই যৌনকর্মীদের কথা বলার ভঙ্গি ও তাদের শরীরী ভাষা শেখার জন্য কামাঠিপুরায় যেতে হয়েছিল তাকে।

সঞ্জয় লীলা বানসালি পরিচালিত এ চলচ্চিত্রে আলিয়া ছাড়াও রয়েছেন অজয় দেবগণ, বিজয় রাজ এবং জিম সার্ভসহ আরও অনেকে। এস হুসেন জাইদির লেখা “মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বাই” গ্রন্থ অবলম্বনে নির্মিত “গাঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ি” আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে।

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২২ | সময়: ৫:০৮ অপরাহ্ণ | সুমন শেখ