সর্বশেষ সংবাদ :

তানোরের সরনজাই ইউনিয়ন পরিষদে ভোট ৭ ফেব্রুয়ারি

টিপু সুলতান, তানোর: স্থগিত হওয়া তানোরে সরনজাই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার এবিষয়ে উপজেলা নিবার্চন অফিসসহ বিভিন্ন প্রশাসনের দপ্তরে চিঠি দেওয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের উপ-সচিব আতিয়ার রহমানের স্বাক্ষরিত চিঠিতে উল্লেখ করা হয় নির্বাচন কমিশন সিন্ধান্ত মোতাবেক সরনজাই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যার ও আ’লীগের মনোনীত (নৌকার ) প্রার্থী আব্দুল মালেক ভোটে অংশগ্রহনের আইনগত সুযোগ নেই।
নির্বাচন স্থগিতের বিষয়টি সরনজাই ইউনিয়নে ছড়িয়ে পড়লে ক্ষোভে ফেটে পড়েন অন্যসব চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীরা।
জানা গেছে, আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল মালেকের ঋণ খেলাপীর কারণে বাছাইয়ের দিনে প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছিলো।
এনিয়ে প্রার্থী আবদুল মালেক তার সমদয় ঋণ পরিষদ করে জেলা নির্বাচন অফিসে আপিল করেন। জেলা নির্বাচন অফিস আপিল শোনানিতেও তার প্রার্থীতা বাতিল করেন।
এ বিষয়ে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুল মালেক হাই কোর্টে রিট করলে হাইকোর্ট তার প্রার্থী বহাল রাখেন। পরে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (মটরসাইকেল) আবু সাঈদ হাই কোর্টের রিটের উপর হাই কোর্টে আপিল করেন।
কিন্তু এরইমধ্যে ব্যালটে নৌকার প্রার্থীর প্রতিক থাকলেও হাই কোর্টের আদেশে নৌকার প্রার্থীতা বাতির ঘোষনা করায় সরনজাই ইউপি নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছিল।
তানোর উপজেলা নির্বাচন অফিসার গোলাম মোস্তফা বলেন, ৭ ফেব্রুয়ারি সরনজাই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের জন্য সব আয়োজন প্রস্তুত রয়েছে।
তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পংকজ চন্দ্র দেবনাথ বলেন, মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনের চিঠি পেয়েছি। ৭ ফেব্রুয়ারি সরনজাই ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে আইনী জটিলতার কারণে (নৌকার) প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক নির্বাচনের অংশ গ্রহণ করতে পারবেন না বলে চিঠিতে উল্ল্খে করা হয়েছে।
উল্ল্খ্যে, গত ১১ নভেম্বর তানোর উপজেলার ৭ টি ইউপি ভোট গ্রহনের তারিখ ঘোষনা করেছিলেন নির্বাচন কমিশন। কিন্তু সরনজাই ইউনিয়ন ব্যতিত উপজেলার ৬টি ইউপিতে ভোট গ্রহন হয়।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২, ২০২২ | সময়: ৪:২৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর