রাবি প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগ দাবি

রাবি প্রতিনিধি:
ক্যাম্পাসে ছিনতাইকারীদের শনাক্তকরণে ব্যর্থ হওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। আজ বুধবার (১৯ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্ত্বরে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এ দাবি জানায় তারা।

মানববন্ধনে প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগ চেয়ে ফলিত রসায়ন ও রসায়ন প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী রাকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, ‘১৭ তারিখ রাতে ছিনতাইয়ের ঘটনার পরে প্রক্টরিয়াল বডি আমাদের সাথে হাস্যরসাত্মক কথা বলেছিল। এক সহকারী প্রক্টর কোনো তৎপরতা না দেখিয়ে বাসায় চলে যেতে চাচ্ছিলো। প্রত্যেক পয়েন্টে সিসি ক্যামেরা থাকলেও আমরা তাদের কোনো পদক্ষেপ দেখিনা। আমরা মনে করি, বর্তমান প্রক্টরিয়াল বডি শহীদ ড. শামসুজ্জোহা স্যারের স্মৃতিবিজড়িত সম্মানিত এই পদটাকে কলঙ্কিত করছে। তাই, আমরা এই প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগ দাবি করছি।’

শিক্ষার্থীরা নিরাপদ না থাকলে পড়াশোনা কিভাবে করবে? এমন প্রশ্ন রেখে একই বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান বলেন, ‘প্রশাসনের কাছে আমি জোর দাবি জানাতে চাই যে তারা আগে নিরাপত্তাটাকে নিশ্চিত করুক। তাহলে শিক্ষা কার্যক্রমও সুষ্ঠুভাবে হবে।’

প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যদের ৭৩’র এ্যাক্ট ভালো করে পড়ার পরামর্শ দিয়ে পপুলেশন সায়েন্স অ্যান্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভলপমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থী আমানুল্লাহ খান বলেন বলেন, ‘৭৩ এর এ্যাক্ট পড়ে দেখেন শিক্ষার্থীদের প্রতি আপনাদের দায়িত্ব কি এবং কিভাবে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হয় আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে। প্রক্টরিয়াল বডির দায়িত্ব শুধু বিভিন্ন জায়গায় লাইট মারার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকতে পারেনা। সহকারী প্রক্টরদের দায়িত্ব বিভিন্ন বিষয় ও জায়গায় ভাগ করে দেওয়া উচিত। ‘

বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরাপত্তাহীনতার মূল দায় প্রক্টরিয়াল বডির দাবি করে রাকসু আন্দোলন মঞ্চের আহ্বায়ক আব্দুল মজিদ অন্তর বলেন, ‘বিগত দুই সপ্তাহ যাবত ক্যাম্পাসে দশ থেকে বারোটা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনার সাথে জড়িতদের আটক বা ছিনতাই হওয়া জিনিস উদ্ধারের নজির এই প্রক্টরিয়াল বডি দেখাতে পারেনি। এই প্রক্টরিয়াল টিম ছিনতাইকারীদের রক্ষার কাজ করছে। কোনো ঘটনার পরে তার কাছে গিয়ে সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখে দূর্বৃত্তদের শনাক্ত করার কথা বললে, তিনি থানায় গিয়ে মামলা বা জিডি করার কথা বলেন। সব ঘটনায় যদি থানায় যাওয়া লাগে তাহলে প্রক্টরিয়াল টিমের দায়িত্ব কি?’

‘অযোগ্য’ প্রক্টরের কার্যকলাপের দায় উপাচার্যকেও নিতে হবে দাবি করে তিনি আরও বলেন, দুই-এক দিনের মধ্যে ছিনতাইকারীদের আটক করতে না পারলে আমরা প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নিবো এবং পুরো প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগ দাবিতে শক্ত অবস্থানে যাবো।’ এসময় মানববন্ধনে বিভিন্ন বিভাগের প্রায় অর্ধশত শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সানশাইন/১৯ জানুয়ারি/এলএইচ


প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২২ | সময়: ১১:০২ অপরাহ্ণ | সুমন শেখ