ভোলাহাটে নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ সংবাদ সম্মেলন

ভোলাহাট প্রতিনিধি: ভোলাহাটের দলদলী ইউনিয়নে ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নানা অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আরজেদ আলী ভুটু।
সোমবার বেলা ১১ টার দিকে পোল্লাডাঙ্গা বাজারে এলাকার সহস্রাধিক মানুষের উপস্থিতিতে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ভুটু। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ভোলাহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন সুষ্ঠ নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নৌকার পক্ষে প্রভাব বিস্তার করে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন।
তিনি আরও বলেন, ২৬ ডিসেম্বরের নির্বাচনে দলদলী ইউনিয়নের স্থগিত তিনটি ভোট কেন্দ্রে ফলাফল ঘোষণা করা হলে আমার বিজয় নিশ্চিত হতো। কিন্তু নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা কর্তা ব্যক্তিদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান নিজের পছন্দের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে ঠুনকো অজুহাতে নাজিরপুর, ময়ামারী ও আদাতলা ৩টি ভোট কেন্দ্রের ফল ঘোষণা বন্ধ করে দেয়া হয়।
তিনি বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে নৌকার পক্ষে ভোট করেছেন। তিনি ভোট ডাকাতির কাজে নৌকার সমর্থকদের সহায়তা করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে আরো বলেন, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে নৌকার সমর্থকরা আমার এজেন্টকে ভোট কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়েছে। এছাড়া ১নং ওয়ার্ডের নাজিরপুর ভোট কেন্দ্রে সুষ্ঠু ভাবে ভোট গ্রহণ হলেও ফলাফল ঘোষনা করা হয়নি।
সংবাদ সম্মেলনে, দলদলী ইউনিয়নের ১, ৩ ও ৪ নং ওয়ার্ডে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট সম্পন্ন হওয়ায় ভোটারদের ফলাফল ঘোষণা। ৬, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের পূণ ভোট গণনার দাবী জানান আরজেদ আলী।
উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসন বলেন, আরজেদ আলী ভুটু আমার বিরুদ্ধে যা বলেছেন তা বানোয়াট।
উপজেলা নির্বাচন ও রিটার্নিং অফিসার তাসিনুর রহমান জানান, তিনটি কেন্দ্রে ভোট স্থগিদ করা হয়েছে। পুনরায় তফসিল ঘোষণা করে এসব কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ্য, একই ঘটনায় দলদলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী আরজেদ আলী ভুটু গত ২৮ ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলন ও ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।


প্রকাশিত: জানুয়ারি ৪, ২০২২ | সময়: ৭:০৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর