বাঘায় আ’লীগের পথসভা স্থলে ককটেল বিস্ফোরণ

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: বাঘায় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর পূর্বনির্ধারিত পথসভার স্থানে ককটেল বিস্ফরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জনমনে ভীতি সৃষ্টি হওয়ায় সাময়িক ভাবে বন্ধ করা হয়েছে দলীয় পথসভা। শনিবার দুপুরে উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের টলটলি পাড়ায় বিষ্ফোরণের এ ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় ক্ষয় ক্ষতি হয়নি।
বাঘা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল জানান, আগামী ২৬ ডিসেম্বর উপজেলার আড়ানী, বাউসা এবং চকরাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এ নির্বাচন উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেত্রীবৃন্দ একেক দিন-একেক ইউনিয়নে গিয়ে পাড়া-মহল্লায় ভোট চাওয়াসহ বিভিন্ন বাজার এবং মোড় এলাকায় দলীয় প্রার্থীর পক্ষে পথসভা করে থাকি। একইসাথে বর্তমান সরকারের উন্নয়নকে গতিশীল করার লক্ষে দলীয় প্রার্থীর নৌকা প্রতীকে ভোট চাই।
সেই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকাল থেকে আমি এবং উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, আ’লীগ নেতা মাসুদ রানা তিলু, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, আড়ানী পৌর আ’লীগের সভাপতি শহিদুজ্জামান সাইদ, বাঘা পৌর সভার সাধারণ সম্পাদক মামুন হোসেন, বাঘা পৌর সভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু, দলীয় প্রার্থী শফিকুর রহমান শফিক ও বাউসা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন এবং ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল হোসেনসহ আমরা একদল নেতা-কর্মী ঐ ইউনিয়নের তেতুলিয়া বাজার, হরিনা বাজার, আড়পাড়া গ্রাম, পিরগাছা মোড় ও ছিরামপাড়া এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় সংযোগ করি। দুপুরে ফতেপুর বাউসা এলকায় গণসংযোগ শেষে প্রার্থীর বাড়িতে খাওয়া-দাওয়া করি।
তিনি বলেন, আমাদের আজকের পরিকল্পনা ছিলো আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃত বিদ্রোহী প্রার্থী নুর মোহাম্মদ তুফানের এলাকা টলটলি পাড়া মোড়ে বিকেলে একটি পথসভা করবো। হটাৎ করে খবর পাই সেখানে একটি স্বার্থান্বেষী মহল ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় ঐ অঞ্চলের মানুষের মাঝে ভীতি ছড়িয়ে পড়ায় আমরা পথসভা স্থগিত ষোষণা করি।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে ছিলাম। কে-বা কারা জনমনে ভীতি সঞ্চয়ের জন্য ককটেল ফাটিয়েছে। তবে এতে কারো কোন ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১২, ২০২১ | সময়: ৪:২৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ